টাকার জন্য পৃথিবী সীমান্তবিহীন, মানুষের জন্য না: মাহাথির

ঢাকা, ১৩ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

টাকার জন্য পৃথিবী সীমান্তবিহীন, মানুষের জন্য না: মাহাথির

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৫৬ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০১৯

টাকার জন্য পৃথিবী সীমান্তবিহীন, মানুষের জন্য না: মাহাথির

পশ্চিমা দেশগুলোতে কোনো সীমান্ত নেই এমন দাবি শরণার্থী ইস্যুর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বলে মন্তব্য করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।

তিনি বলেন, পশ্চিমারা ‘সীমান্তবিহীন বিশ্ব’র একটা ধারণা তৈরি করেছে, কিন্তু এর আসল মানে হচ্ছে ‘কেবলমাত্র পূঁজির প্রবাহের’ জন্য এটা সীমান্তবিহীন।

গত রোববার যুক্তরাজ্যে কেমব্রিজ ইউনিয়ন সফরকালে এসব কথা বলেন মাহাথির মোহাম্মদ।

মাহাথির বলেন, ‘মানুষ যখন সেখানে যেতে শুরু করলো, পশ্চিমা দেশগুলো দেয়াল ও কাঁটাতারের বেড়া বানানো শুরু করলো ঢুকতে না দেয়ার জন্য।’

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৯৭-৯৮ সালে তার দেশ মুদ্রা সংকটে ভুগেছিল, কারণ বিদেশ থেকে ‘বিশাল অঙ্কের টাকা’ মালয়েশিয়ায় যাচ্ছিল, যার কারণে শেয়ারের স্টকের দাম বেড়ে যায়।’

‘যখন শেয়ারের দাম যথেষ্ট বাড়লো, তখন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তাদের শেয়ারের দাম কমিয়ে দিয়ে লাভ বুঝে নিয়ে ওই দেশ ছেড়ে চলে যায়। স্থানীয়রা পরে বুঝতে পারে শেয়ার বাস্তবে মূল্যহীন,’ বললেন তিনি।

মাহাথির আরও বলেন, ‘মালয়েশিয়া ওই সংকট কাটিয়ে উঠেছিল সনাতন পন্থা অনুসরণ এবং প্রাচ্যমুখী হওয়ার কারণে। তবে মালয়েশিয়া তাদের মুদ্রা বিনিময়ের হার ঠিক করার ক্ষেত্রে কিছু ‘ভুল’ পদক্ষেপ নিয়েছিল।

মুখ থুবড়ে পড়ার বদলে, আমরা ওই সংকট কাটিয়ে উঠি বলেও মন্তব্য করেন মাহাথির।

মাহাথির আরো মন্তব্য করেন, ‘লাতিন আমেরিকা থেকে বিপুল সংখ্যক মানুষ যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছে কারণ তারা দেশটিকে ‘স্বর্গরাজ্য’ বলে মনে করে। তবে দুর্ভাগ্যক্রমে ট্রাম্প সম্ভবত ওদের চেহারা ও রঙ পছন্দ করেন না।’

ইউরোপে একই অবস্থায় থাকা আরব ও আফ্রিকান শরণার্থীদের কথাও উল্লেখ করেন তিনি।

মাহাথির জানান, ‘ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন আগে যে অবস্থায় ছিল এখন সেই অবস্থায় নেই। এটা আর বিশ্বের মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে না।’

এমআর/এইচআর

 

এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও