ইমরুল-সৌম্যকে দলে ডাকার খবর জানতেন না মাশরাফি!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ২ কার্তিক ১৪২৫

ইমরুল-সৌম্যকে দলে ডাকার খবর জানতেন না মাশরাফি!

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৪৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮

ইমরুল-সৌম্যকে দলে ডাকার খবর জানতেন না মাশরাফি!

সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি (ফাইল ছবি)

বিস্ময়করই বটে! টুর্নামেন্টের মাঝ পথে দুজন খেলোয়াড়কে যোগ করা হচ্ছে স্কোয়াডে। অথচ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানেনই না তাদের অন্তভূক্তির প্রসঙ্গে। শুক্রবার ওপেনিং জুটির সমস্যা কাটাতে এশিয়া কাপের মাঝ পথেই দলে ডাকা হয়েছে ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে ৭ উইকেটে হারা ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বললেন, ‘ওরা যে আসছে, আমার সঙ্গে আলোচনা হয়নি।’

তামিম ইকবাল ইনজুরিতে পড়ে দেশে ফিরলেও তার পরিবর্তে তখন দলে ডাকা হয়নি কাউকে। বিকল্প হিসেবে তরুণ নাজমুল হোসেন শান্ত ছিলেন বলেই প্রয়োজন মনে করেনি বাংলাদেশ টিম ম্যানেজম্যান্ট। কিন্তু আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের পর শুক্রবার ভারতের বিপক্ষেও ব্যর্থ লিটন ও নাজমুলের অনভিজ্ঞ ওপেনিং জুটি।

এশিয়া কাপের দলে যোগ দিতে তাই ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকরকে জরুরীভাবে দুবাই উড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে টাইগার টিম ম্যানেজম্যান্ট। শনিবার সন্ধ্যায় দুবাইয়ের বিমান ধরবেন এই দুজন। ভারতের বিপক্ষে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে এই দুজনে ওপেনিং সমস্যা কাটবে কিনা সেই প্রশ্ন উঠল। কিন্তু মাশরাফি দিলেন বিস্ময়কর তথ্য, ‘ওরা যে আসছে আমি নিশ্চিত না। আমি মাঠে ছিলাম। তাই পুরোপুরি ক্লিয়ার না। আমার সঙ্গে আলোচনা হয়নি।’

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালেই আসলে ঘোষণাটা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু সেটা অধিনায়করে একবারেই অজান্তে হয় কি করে! তাছাড়া মাশরাফি যে নতুন দুজনকে দলে ডাকায় খুশি সেটিও মনে হচ্ছেন না।

টাইগার অধিনায়ক যেমন সরাসরি বললেন, ‘ওরাও কিন্তু এমন পারফর্ম না করেই দল থেকে বের হয়েছে। আবার এসে এই ধরনের টুর্নামেন্টে এত চাপ নিয়ে...আমি জানি না ওরা টেকনিক্যালি কতটা কাজ করেছে। যে সমস্যার কারণে দলের বাইরে গিয়েছিল, সেগুলো ঠিক করে আসছে কিনা।’

মাশরাফি উদাহরণও টানলেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপে একবার খেলেছে বাংলাদেশ। বড় ব্যবধানে হার সে ম্যাচ। এখন যারা দলে আছেন তাদের চেয়ে নতুন যোগ দিয়ে ইমরুল ও সৌম্যর জন্য আফগানদের খেলা যে কঠিন হবে সেই উদাহরণ টানলেন অধিনায়ক।

মাশরাফি বলেন, ‘এটা কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে আফগানিস্তানের ম্যাচ যদি চিন্তা করেন, আমার মনে হয় তাদের (সৌম্য ও ইমরুল) আরও কঠিন বোলার মোকাবিলা করতে হবে।’

টিএআর