যে দুআ সকল দুআর সমষ্টি

ঢাকা, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯ | ১০ চৈত্র ১৪২৫

যে দুআ সকল দুআর সমষ্টি

-পরিবর্তন ডেস্ক ৬:১৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯

যে দুআ সকল দুআর সমষ্টি

রাসুলুল্লাহ (সা.) থেকে অনেক অনেক দুআ হাদিস শরীফে বর্ণিত হয়েছে। প্রতিটি দুআই গুরুত্বপূর্ণ ও বিশিষ্ট। এসকল দুআগুলো সবার পক্ষে মুখস্ত রেখে আমল করা সহজ নয়। তাই চলুন এমন একটি দুআ শিখে নেই যা প্রিয় নবী (সা.) উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রা.) কে শিখিয়েছিলেন। আর সে দুআটি মোটামুটি সকল দুআর সমষ্টি।

হযরত আয়েশা (রা.) থেকে বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) তাঁকে নিম্নোক্ত দুআটি শিখিয়েছেন-

اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ مِنْ الْخَيْرِ كُلِّهِ عَاجِلِهِ وَآجِلِهِ مَا عَلِمْتُ مِنْهُ وَمَا لَمْ أَعْلَمْ- وَأَعُوذُ بِكَ مِنْ الشَّرِّ كُلِّهِ عَاجِلِهِ وَآجِلِهِ مَا عَلِمْتُ مِنْهُ وَمَا لَمْ أَعْلَمْ - اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ مِنْ خَيْرِ مَا سَأَلَكَ عَبْدُكَ وَنَبِيُّكَ وَأَعُوذُ بِكَ مِنْ شَرِّ مَا عَاذَ بِهِ عَبْدُكَ وَنَبِيُّكَ - اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ الْجَنَّةَ وَمَا قَرَّبَ إِلَيْهَا مِنْ قَوْلٍ أَوْ عَمَلٍ - وَأَعُوذُ بِكَ مِنْ النَّارِ وَمَا قَرَّبَ إِلَيْهَا مِنْ قَوْلٍ أَوْ عَمَلٍ - وَأَسْأَلُكَ أَنْ تَجْعَلَ كُلَّ قَضَاءٍ قَضَيْتَهُ لِي خَيْرًا

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নী আসআলুকা মিনাল খাইরি কুল্লিহি আজিলিহি ওয়া আজিলিহি মা আলিমতু মিনহু ওয়া মা লাম আ’লাম। ওয়া আঊজু বিকা মিনাশ শাররি কুল্লিহি আজিলিহি ওয়া আজিলিহি মা আলিমতু মিনহু ওয়া মা লাম আ’লাম। আল্লাহুম্মা ইন্নী আসআলুকা মিন খাইরি মা সাআলাকা আব্দুকা ওয়া নাবিয়্যুকা ওয়া আঊজু বিকা মিন শাররি মা আ’-জা বিহি আব্দুকা ওয়া নাবিয়্যুকা। আল্লাহুম্মা ইন্নী আসআলুকাল জান্নাতা ওয়া মা কররাবা ইলাইহা মিন কওলিন আও আমালিন। ওয়া আঊজু বিকা মিনান্নারি ওয়া মা কররাবা ইলাইহা মিন কওলিন আও আমালিন। ওয়া আসআলুকা আন-তাজ’আলা কুল্লা কাজা-ইন কাজাইতাহু লী খাইরান।

অর্থ: “হে আল্লাহ! দুনিয়া ও আখিরাতের আমার জানা অজানা যত কল্যাণ ও নেয়ামাত আছে তা সবই আমি চাই। দুনিয়া ও আখিরাতের আমার জানা-অজানা সকল অকল্যাণ থেকে তোমার নিকট আশ্রয় চাই।

হে আল্লাহ! আমি তোমার নিকট ঐ সব কল্যাণ চাচ্ছি যা তোমার বান্দা ও নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম চেয়েছিলেন এবং তোমার নিকট ঐ সব অমঙ্গল থেকে আশ্রয় চাচ্ছি যা থেকে তোমার বান্দা ও নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আশ্রয় চেয়েছিলেন।

হে আল্লাহ! আমি তো বেহেশতে যেতে চাই। আর সে কথা ও কাজের তাওফীক চাই যা সহজেই আমাকে বেহেশতে পৌঁছাবে। হে আল্লাহ! জাহান্নামের আগুন থেকে তোমার নিকট আশ্রয় চাই এবং যে কথা ও কাজ মানুষকে জাহান্নামবাসী করে সেগুলো থেকেও তোমার কাছে আশ্রয় চাই। আর প্রতিটি কাজের বিচারে আমার জন্য কল্যাণকর ফায়সালা করে দিও।” -ইবনে মাজাহ:৩৮৪৬; মুসনাদে আহমাদ: ২৪৪৯৮; সহিহ আল-জামে: ১২৭৬

রাব্বুল আলামিন আমাদের মুনাজাতে বা একাকী সব সময় বেশি বেশি এই দুআ করার তাওফিক দান করুন। আমীন।

এমএফ/

আরও পড়ুন...
দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক নেক আমলগুলো জেনে নিন
মহানবী (সা.) যে দুআটি সাহাবাদের শিখাতেন
নবীজির সকাল-সন্ধ্যায় পঠিত দুআ
বিপদ-মুসিবতে পড়ুন নবীজির দুআ!
কর্মস্থলেই যে ২৫টি আমল করে ফেলতে পারেন
জেনে নিন ফরয নামায পরবর্তী সহিহ দু’আ ও জিকির সমূহ
আয় বাড়াতে যে আমলগুলো করবেন
স্বচ্ছলতা লাভের ৬ কুরআনি পরামর্শ
মৃত বাবা-মায়ের জন্য যে আমলগুলো শিখিয়েছেন আল্লাহ ও তাঁর রাসুল
মহানবী (সা.) যে দুআটি অধিকাংশ সময় করতেন