ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি জানেন তো?

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি জানেন তো?

মুহাম্মাদ ফয়জুল্লাহ ৪:২৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২১, ২০১৮

ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি জানেন তো?

আল্লাহ তাআলা বলেন- فَصَلِّ لِرَبِّكَ وَانْحَرْ “তোমার প্রতিপালকের উদ্দেশ্যে সালাত আদায় কর ও কোরবানি কর।” (সূরা কাওসার) অধিকাংশ সম্মানিত মুফাসসিরিনে কেরামের মতে এ আয়াতে সালাত তথা নামায বলতে ঈদের নামাযের কথাই বলেছেন। ঈদের নামায আদায় করা ওয়াজিব। তাই মুসলিম হিসেবে কর্তব্য হবে পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে আগ্রহ সহকারে ঈদের নামাযে অংশ গ্রহণ করা, মনোযোগ দিয়ে খুতবা শোনা, এবং ঈদের প্রচলনের লক্ষ্য-উদ্দেশ্য সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা করা।

যেহেতু ঈদের নামায বছরে কেবল দু’বার আদায় করা হয়, তাই অনেক মুসলিম ভাই-বোন আছেন যারা এর আদায় পদ্ধতি ভুলে যান। ফলে তারা অতিরিক্ত তাকবীরগুলোতে ভুল করে ফেলেন, কেউ কেউ অন্যরা কি করছে তা আড় চোখে দেখে অনুসরণের চেষ্টা করেন – যা অবশ্যই নামাযের জন্য ক্ষতিকর। তাই এ নিবন্ধে পাঠকদের জন্য ঈদের নামায আদায়ের পদ্ধতি তুলে ধরা হল।

প্রথমে কান বরাবর উভয় হাত তুলবে। তারপর এই ভাবে নিয়ত করবে যে “আমি ঈদুল ফিতর বা ঈদুল আযহার দুই রাকা‘আত ওয়াজিব নামায এই ইমামের পিছনে পড়ছি।” অতঃপর তাকবীরে তাহরীমা বলে হাত নাভির নিচে বাঁধবে এবং ছানা “সুবহানাকা…” পুরা পড়বে। তারপর আরো তিন বার তাকবীর বলবে। প্রথম দুইবার হাত কান পর্যন্ত উঠিয়ে আল্লাহু আকবার বলে হাত ছেড়ে দিবে। এরপর তৃতীয় বার হাত কান পর্যন্ত তুলে আল্লাহু আকবার বলে হাত বেঁধে চুপ করে ইমামের কিরাআত শ্রবণ করবে।

এভাবে প্রথম রাকা‘আত আদায়ের পর দ্বিতীয় রাকা‘আতের কিরাআতের পর তিন বার হাত কান পর্যন্ত উঠিয়ে প্রত্যেকবার আল্লাহু আকবার বলে হাত ছেড়ে দিবে। এরপর চতুর্থ বার হাত না তুলে আল্লাহু আকবার বলে রুকুতে যাবে এবং অবশিষ্ট নামায অন্যান্য নামাযের ন্যায় সম্পন্ন করবে। (ফাতাওয়ায়ে শামী-১/১৭২)
এমএফ/

আরও পড়ুন...

সুন্নতের অনুসরণে ঈদ আনন্দও হোক ইবাদত