গোপালগঞ্জের সিলনা গ্রামের নাম এখন ‘উচ্ছে গ্রাম’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮ | ২ শ্রাবণ ১৪২৫

গোপালগঞ্জের সিলনা গ্রামের নাম এখন ‘উচ্ছে গ্রাম’

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ০৯, ২০১৮

print
গোপালগঞ্জের সিলনা গ্রামের নাম এখন ‘উচ্ছে গ্রাম’

গোপালগঞ্জের সিলনা গ্রাম ইতোমধ্যে উচ্ছে (করলার ছোট জাত) গ্রাম হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে। মাঠের পর মাঠ শুধু উচ্ছে আর উচ্ছে। গোপালগঞ্জের বাজার ছাড়িয়ে এখানকার উচ্ছে চলে যাচ্ছে বাইরের জেলার বাজারে।দাম ভাল পাওয়ায় কৃষকেরাও খুশি।

 

জেলার বিভিন্ন স্থানে অন্তত দেড় হাজার বিঘা জমিতে এবার উচ্ছে চাষ হয়েছে। এর মধ্যে বেশীর ভাগই চাষ হয়েছে সদর উপজেলার সিলনা গ্রামে।এই এলাকার প্রধান ফসল বলতেই উচ্ছেকে বোঝায়। গ্রামের প্রায় প্রতিটি কৃষকই তাদের জামিতে উচ্ছে ফলান। এখন এখানকার জমি থেকে পুরোদমেই উচ্ছে তুলছেন কৃষকেরা। জেলা সদরের বাজারে প্রতি কেজি উচ্ছে কৃষকেরা ৬০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। আর দোকানিরা বিক্রি করছেন ৭০ টাকা কেজি দরে।

সিলনা গ্রামের উচ্ছে চাষী রমেন বিশ্বাস, উৎপল বিশ্বাসসহ অন্যরা জানালেন, তাদের উৎপাদিত উচ্ছে বাজারে বিক্রি করে ভাল দাম পাচ্ছেন তারা। আর এতে লাভবান হচ্ছেন তারা। আগামীতে এ এলাকায় উচ্ছের চাষ আরো বাড়বে এমনটি প্রত্যাশা কৃষকদের।

গোপালগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর-এর উপ-পরিচালক সমীর কুমার গোস্বামী বললেন, সদর উপজেলার সিলনা গ্রামের প্রতি বছরই কৃষকেরা তাদের জমিতে উচ্ছে চাষ করে থাকেন।এ কারনে এ গ্রামটিকে লোকজন উচ্ছের গ্রাম হিসাবেই অভিহিত করেন। এ গ্রামে উচ্ছের চাষ দিন দিন বাড়ছে। প্রয়োজনীয় সুযোগ সুবিধা পেলে শুধু সিলনা গ্রামেই নয় জেলার অন্যান্য গ্রামের কৃষকেরাও উচ্ছে চাষ করে লাভবান হতে পারবে।

এমএইচএম

 
.



আলোচিত সংবাদ