করলা চাষে সফল মঞ্জুবার মণ্ডল

ঢাকা, ৯ এপ্রিল, ২০১৯ | 2 0 1

করলা চাষে সফল মঞ্জুবার মণ্ডল

নুর আলম, নীলফামারী ৪:০৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০১৯

করলা চাষে সফল মঞ্জুবার মণ্ডল

নীলফামারী সদরের সংগলশী ইউনিয়নে টিয়া (হাইব্রিড করলা) চাষের ওপর সবজি প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউনিয়নের কাজীরহাট দক্ষিণ বালাপাড়ায় এ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান বক্তা ছিলেন কৃষি অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক ও লালতীর সিড লিমিটেডের নির্বাহী সমন্বয়কারী ড. ফিরোজ শাহ সিকদার।

সংগলশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে মাঠ দিবসের আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবুল কাশেম আযাদ।

লালতীর সিডের রংপুর রিজিওনাল ম্যানেজার হেলাল উদ্দিন বিশ্বাসের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য দেন বগুড়া ডিভিশনাল ম্যানেজার শফিকুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন লালতীরের ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার ও উপ-মহাব্যবস্থাপক জহির আহমেদ, মহাব্যবস্থাপক (উৎপাদন) ড. ইসরাত হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক বশির উদ্দিন।

অনুষ্ঠানে করলা চাষে নিজেদের সফলতার কথা তুলে ধরেন চাষি মঞ্জুবার মণ্ডল ও সফিউল আলম।

কৃষক মঞ্জুবার মণ্ডল বলেন, ১২ শতাংশ জমিতে লালতীরের টিয়া (হাইব্রিড করলা) আবাদ করেছি। এখন পর্যন্ত ৩০ হাজার টাকার করলা বিক্রি হয়েছে। আরো ৩০ হাজার টাকার বিক্রি করার মতো করলা রয়েছে জমিতে। তিনি বলেন, ১২ শতাংশে খরচ হয়েছে ৮ হাজার টাকা।

আরেক কৃষক সফিউল আলম বলেন, আমি দীর্ঘদিন থেকে লালতীরের টিয়া করলা আবাদ করে আসছি। এর ফলন ও দাম ভালো পেয়েছি। বাজারে টিয়া করলার চাহিদাও ব্যাপক রয়েছে।

লালতীর সিডের রংপুর রিজিওনাল ম্যানেজার হেলাল উদ্দিন পরিবর্তন ডটকমকে জানান, শুধুমাত্র সংগলশী ইউনিয়নে লালতীরের টিয়া জাতের করলা আবাদ করেছেন দেড়শ কৃষক। গোটা জেলায় প্রায় এক হাজার কৃষক টিয়া আবাদ করছেন।

তিনি বলেন, টিয়া জাতের করলা চাষে উদ্বুদ্ধ করতে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের আমরা উদ্বুদ্ধ করছি। দিন দিন আগ্রহ বাড়ছে তাদের মাছে এই করলা আবাদে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর নীলফামারীর উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আবুল কাশেম বলেন, এ জাতের বীজ সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে পারলে দেশের কৃষি অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে। পাশাপাশি ভালো ফলন ও কৃষকরাও লাভবান হবেন।

এইচআর

 

কৃষি ও খাদ্য: আরও পড়ুন

আরও