শীতকালীন সবজিচাষে খুশি পঞ্চগড়ের কৃষকরা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

শীতকালীন সবজিচাষে খুশি পঞ্চগড়ের কৃষকরা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০১৮

শীতকালীন সবজিচাষে খুশি পঞ্চগড়ের কৃষকরা

পঞ্চগড়ের মাটি সাধারণত উঁচু এবং বেলে দোআঁশ । এ মাটিতে সবজি চাষ ভালো হয়। সে কারণে পঞ্চগড়ে শীতকালীন সবজি চাষ করে এবার লাভবান হয়েছেন কৃষকরা। জেলার সব কটি উপজেলার মাটি সবজি চাষের জন্য বিশেষভাবে উপযোগী।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, বাড়ির আনাচে-কানাচে, খালি জায়গায় শীতকালীন সবজি হিসেবে শিম, লাউসহ অন্যান্য সবজি চাষ করেছেন কৃষকরা।

সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া, দালালপাড়া, পাউকানী গ্রামের সবজিচাষি মতিন, রুহুল আমিন, শাহজাহান আলী পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, যেটুকু জায়গায় সবজি চাষ করে যে টাকা পাওয়া যায়, সেই জমিতে ধান বা অন্য ফসল করে এত দাম পাওয়া যায় না। সে কারণে এ এলাকার চাষিরা শীতকালীন সবজি চাষে ঝুঁকেছেন।

হাফিজাবাদ ইউনিয়নের কৃষক আবু বক্কর, সিরাজুল ইসলাম এবার জমিতে শিম লাগিয়েছেন। তারা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, প্রথম প্রথম শিমের বাজার ২ হাজার ৮০০ টাকা থেকে ৩ হাজার টাকা মণ বিক্রি হয়েছে। হঠাৎ করে শিমের বাজারে ধস নেমে যাওয়ায় কিছু চাষি বিপাকে পড়েছেন। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবং পোকামাকড়ের উপদ্রব কম হওয়ায় সবজি চাষ ভালো হয়েছে।

পঞ্চগড়ের উৎপাদিত সবজি স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে চলে যায়। আগামীতে এই সবজি চাষ বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছেন কৃষকরা ।

জেলা কৃষি বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো. আবদুল মতিন পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, এ বছর জেলায় ৬০৫ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি চাষ হয়েছে।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সবজির আবাদ ভালো হয়েছে। পঞ্চগড়ের সবজি স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে চলে যাচ্ছে। আগামী বছরে সবজির চাষ বৃদ্ধি পাবে বলে কৃষি বিভাগ জানিয়েছে।

এমএ