চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু রবিবার

ঢাকা, ২৪ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু রবিবার

পরিবর্তন ডেস্ক: ৩:০৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৯

চুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু রবিবার

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের লেভেল-১ স্নাতক (সম্মান) কোর্সের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার অনলাইনে আবেদন আগামীকাল ২৫ আগস্ট (রবিবার) সকাল ৯ টা থেকে থেকে শুরু হচ্ছে। আবেদনের সময় শেষ হবে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টায়।

আবেদন সংগ্রহ শেষে আগামি ১২ অক্টোবর (শনিবার) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। চারটি অনুষদের ১২টি বিভাগে সর্বমোট ৮৯০ টি আসনের বিপরীতে এবারের ভর্তি পরীক্ষা হবে। ১২ অক্টোবর (শনিবার) সকাল ১০ টা-বেলা ১টা পর্যন্ত (সময় ৩ ঘণ্টা) লিখিত পরীক্ষা এবং একই দিন বিকাল আড়াইটা থেকে সাড়ে ৪ টা পর্যন্ত (সময় ২ ঘণ্টা) মুক্তহস্ত অংকন পরীক্ষা চলবে। এবার শুধুমাত্র লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং MCQ পদ্ধতির কোন প্রশ্ন থাকবে না।

ভর্তি সংশ্লিষ্ট তারিখ ও সময়সূচি

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদনপত্র গ্রহণ শুরু হবে ২৫ আগস্ট থেকে। তাছাড়া  অনলাইনে আবেদন করার ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের (রকেট) মাধ্যমে টাকা জমাদানের শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত। এ লেভেল এবং বিদেশী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রার্থীদের আবেদনপত্র গ্রহণ করার সময় ২৫ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর প্রতি কার্যদিবসে সকাল ৯ টা হতে বিকাল সাড়ে ৪ টা পর্যন্ত।  ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্য প্রার্থীদের রোলসহ নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে ২৬ সেপ্টেম্বর।

আসনসহ বিভাগসমূহ

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং (১৩০), মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (১৮০), কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (১৩০), ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (১৮০), ইলেকট্রনিক্স এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (৬০), বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং (৩০), ম্যাটেরিয়ালস সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং(৩০), পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং (৩০), মেকাট্রনিক্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং (৩০), আর্কিটেকচার (৩০), আরবান এন্ড রিজিওনাল প্ল্যানিং (৩০) এবং ওয়াটার রিসোর্সেস ইঞ্জিনিয়ারিং (৩০)। বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং  ম্যাটেরিয়াল সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এই দুটি বিভাগ এবার নতুন চালু হয়েছে। এছাড়া রাখাইন সম্প্রদায়ের জন্য ০১টি, পার্বত্য চট্টগ্রাম ও অন্যান্য জেলার উপজাতীয়দের জন্য ১০টি সহ অতিরিক্ত ১১টি আসন সংরক্ষিত আছে। ভর্তির জন্য অন্য কোন ধরনের আসন সংরক্ষিত নেই।

ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্যতা

প্রার্থীকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে। প্রার্থীকে ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিক বা তার সমমানের পরীক্ষায় পাস হতে হবে বা ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের পরে ‘A’ লেভেল সার্টিফিকেট প্রাপ্ত হতে হবে। প্রার্থীকে বাংলাদেশের যে কোন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড/মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড/ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ৪.০০ পেয়ে পাশ হতে হবে অথবা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড পেয়ে পাস হতে হবে। প্রার্থীকে বাংলাদেশের যে কোন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড/মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড/কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে উচ্চ মাধ্যমিক/আলীম/সমমানের পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন বিষয়ের প্রত্যেকটিতে আলাদাভাবে কমপক্ষে গ্রেড পয়েন্ট ৪.০০ ও ইংরেজি বিষয়ে কমপক্ষে গ্রেড পয়েন্ট ৩.৫০ পেয়ে পাস করতে হবে এবং গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজীতে মোট গ্রেড পয়েন্ট কমপক্ষে ১৭.৫০ পেতে হবে। ইংরেজী মাধ্যম/বিদেশী শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় উক্ত বিষয়সমূহে কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড পেয়ে পাস হতে হবে।

প্রার্থী যদি GCE ‘O’  লেভেল এবং ‘A’  লেভেল পাস করে থাকলে তার ক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য GCE ‘O’ লেভেল পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজীসহ কমপক্ষে পাঁচটি পেপারে নূন্যতম ‘B’ গ্রেড পেয়ে পাস হতে হবে। GCE ‘A’ লেভেল পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও গণিতে পৃথক পৃথকভাবে কমপক্ষে ‘B’  পেয়ে পাস হতে হবে।

অনলাইনে ভর্তির আবেদন

ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন ফরম কেবলমাত্র অনলাইনে পূরণ করে এবং আবেদন ফি ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং(রকেট) এর মাধ্যমে প্রদান করতে হবে। কোন ছাপানো ফরম বিক্রয় করা হবে না এবং ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং ব্যতীত অন্য কোন মাধ্যমে আবেদন ফি গ্রহণযোগ্য হবে না। সকল আবেদনকারীর মধ্য থেকে HSC তে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন এবং ইংরেজীতে প্রাপ্ত মোট গ্রেড পয়েন্টের ভিত্তিতে প্রথম ১০,০০০ (দশ হাজার) জনকে ভর্তি পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে। তবে, ১০,০০০ (দশ হাজার)-তম স্থানে একাধিক প্রার্থী থাকলে ক্রমানুসারে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন এবং ইংরেজি বিষয়ের HSC তে প্রাপ্ত গ্রেডের ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষার জন্য যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা হবে। সেক্ষেত্রে HSC তে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন এবং ইংরেজিতে একই গ্রেড প্রাপ্ত ১০,০০০ (দশ হাজার)-তম স্থানের সকল প্রার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

আবেদন ফি

গ্রুপ-ক/KA (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) এর জন্য ১০০০/- (সার্ভিস চার্জ সহ) টাকা এবং গ্রুপ-খ/KHA (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ) এর জন্য ১,১০০/- (সার্ভিস চার্জ সহ) টাকা।

ভর্তি নির্দেশিকা

সকল পরীক্ষার্থী চুয়েট ওয়েবসাইট http://www.cuet.ac.bd/admission হতে ভর্তি নির্দেশিকা ২০১৯-২০ ডাউনলোড করে নিতে পারবে। ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লিখিত নিয়মাবলি ছাত্র-ছাত্রীদেরকে অনুসরণ করতে হবে। ভর্তি বিজ্ঞপ্তি/ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লেখ নেই, ভর্তি সংক্রান্ত এমন কোন তথ্য জানতে হলে রেজিস্ট্রার অফিসের উল্লিখিত মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে হবে। ভর্তি সংক্রান্ত সাধারণ যোগাযোগের জন্য রেজিস্ট্রার অফিসের নিম্নের যে কোন নম্বরে অফিস সময়ে যোগাযোগ করা যেতে পারে। মোবাইল নম্বরগুলো হচ্ছে- ০১৭৫৯১২৩১৪৮ এবং ০১৭৫৯১২৩১০৩।

জেডএস/

 

ভর্তি ও পরীক্ষা: আরও পড়ুন

আরও