‘প্রশ্নফাঁসের অপচেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা’

ঢাকা, ২৪ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

‘প্রশ্নফাঁসের অপচেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১২:৩১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৯

‘প্রশ্নফাঁসের অপচেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা’

প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো ধরনের অপচেষ্টা হলে, সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শনিবার রাজধানীর উত্তরার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

দীপু মনি বলেন, ‘আমরা একেবারে নকল ও প্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা শেষ করতে নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছি। আগের চাইতে এবার আমরা আরও কঠোর অবস্থানে রয়েছি। তাই প্রশ্নফাঁস বা তার গুজব ছড়ালে তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়বে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এমন ন্যাক্কারজনক কাজের সঙ্গে কেউ জড়িত থাকলে, তাকে রেহাই দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা যেসব নির্দেশনা দিয়েছিলাম, তার সবক’টি অনুসরণ করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে প্রশ্নবাক্স খোলা হয়েছে। সারা দেশে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপারে মোড়ানো প্রশ্নপত্র পাঠানো হয়েছে। দেশের সকল স্থানে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত কোথাও প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।’

প্রশ্নফাঁসের গুজবকারী কয়েকজনকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেপ্তার করেছে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘যারা ফেসবুকসহ ইন্টারনেটের মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছেন, তাদের ওপর নজরদারি বসানো হয়েছে। দ্রুত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের ধরতে সক্ষম হবে।’

এ সময় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ছাড়াও শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শনিবার সকাল ১০টায় এসএসসি ও সমমানের প্রথম পরীক্ষা শুরু হয়। প্রথম দিনের পরীক্ষা শেষ হবে দুপুর ১টায়। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে পরীক্ষা। তবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা।

এবার মোট ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এদের মধ্যে ছাত্র ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১, ছাত্রী ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন। ২০১৮ সালের তুলনায় এবার পরীক্ষা বেড়েছে ১ লাখ ৩ হাজার ৪৩৪ জন।

ওএস/এআরই/আইএম

আরও পড়ুন...
মাধ্যমিকে পরীক্ষায় বসেছে সাড়ে ২১ লাখ শিক্ষার্থী

 

ভর্তি ও পরীক্ষা: আরও পড়ুন

আরও