‘ফরীদির অভিনন্দন পাঠিয়ে দিলাম অনন্তলোকে’

ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

‘ফরীদির অভিনন্দন পাঠিয়ে দিলাম অনন্তলোকে’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৩:২৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৮

print
‘ফরীদির অভিনন্দন পাঠিয়ে দিলাম অনন্তলোকে’

কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হবে দিন কয়েক পর। তার আগেই ঘোষণা এলো মরণোত্তর একুশে পদকের।

এতদিন অভিনেতাকে স্বীকৃতি না জানানোই ভক্ত ও সহকর্মীদের আক্ষেপের কমতি ছিল না। বৃহস্পতিবারের ঘোষণা তাদের অনেকেই আনন্দ প্রকাশ করেছেন।

মঞ্চকুসুম শিমুল ইউসুফ ফেসবুকে লেখেন, ‘এ বছর ঢাকা থিয়েটারের দুজন একুশে পদক পাচ্ছেন— মিনু বিল্লাহ এবং হুমায়ূন ফরীদি। ঢাকা থিয়েটারের পক্ষ থেকে দুজনকেই অভিনন্দন। ফরীদির অভিনন্দন পাঠিয়ে দিলাম অনন্তলোকে।’

অভিনেতা ফারুক আহমেদ লেখেন, ‘হুমায়ূন ফরীদি (ফরীদি ভাই) একুশে পদক পাওয়ায় ঢাকা থিয়েটারের সদস্য হিসাবে আমি গর্বিত। মৃত্যুর আগে এই পদক পেলে আমি বেশি আনন্দিত হতাম।’

নির্মাতা অমিতাভ রেজার ভাষ্যে, ‘ইশ.. যদি সোনার মেডেল দিলেই যদি আরেকবার ফরীদি ভাই আর যুবদাকে (খালেদ খান) দেখতে পেতাম! কী আজব লোকগুলো একদিন ত তারা কাজ করতো না সোনার মেডেলের জন্য।’

অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা খবরটি ফেসবুকে শেয়ার করে প্রয়াত অভিনেতার আত্মার শান্তি কামনা করেন।

সংগীতশিল্পী সোমনূর মনির কোনাল পদকের জন্য নির্বাচিত অনেককেই স্মরণ করেন। শেষে লেখেন, ‘কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদি পেয়েছেন মরণোত্তর পদক। একটি কথা শুধু। আমরা যেন আমাদের সূর্যসন্তানদের জীবিত অবস্থায় সম্মান জানাতে পারি। যেভাবেই হোক, তাদের হয়তো জীবনের এই সময়ে এসে এর বেশি কিছু চাওয়ার নেই।’

হুমায়ূন ফরীদি ১৯৫২ সালের ২৯ মে ঢাকার নারিন্দায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম এটিএম নূরুল ইসলাম ও মা বেগম ফরিদা ইসলাম। তিনি পড়াশোনা করেন মাদারিপুরের ইউনাইটেড ইসলামিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদপুর সরকারি কলেজ ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ছাত্রজীবনে মঞ্চ নাটকের মধ্য দিয়ে ফরীদির অভিনয় জীবনের শুরু। টিভি নাটকে প্রথম অভিনয় করেন আতিকুল হক চৌধুরীর প্রযোজনায় ‘নিখোঁজ সংবাদ’-এ। তার অভিনীত অন্যান্য নাটকের মধ্যে রয়েছে সাত আসমানের সিঁড়ি, একদিন হঠাৎ, চাঁনমিয়ার নেগেটিভ পজেটিভ, অযাত্রা, পাথর সময়, দুই ভাই, সংশপ্তক, কোথাও কেউ নেই, দূরবীন দিয়ে দেখুন, ভাঙনের শব্দ শুনি, ভবের হাট প্রভৃতি।

১৯৬৪ সালে প্রথমবার কিশোরগঞ্জে মহল্লার মঞ্চনাটকে অভিনয় করেন। মঞ্চে প্রথম নির্দেশনা দেন স্কুল জীবনে, নাম ‘ভূত’। অন্যান্য নাটকের মধ্যে রয়েছে মুনতাসীর ফ্যান্টাসি, ফণীমনসা, শকুন্তলা, কীত্তনখোলা, কেরামত মঙ্গল প্রভৃতি।

ফরীদি অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র তানভীর মোকাম্মেলের ‘হুলিয়া’। প্রথম বাণিজ্যিক চলচ্চিত্র শহীদুল ইসলাম খোকন পরিচালিত ‘সন্ত্রাস’। অন্যান্য ছবির মধ্যে রয়েছে ভণ্ড, ব্যাচেলর, জয়যাত্রা, শ্যামলছায়া, একাত্তরের যীশু, মায়ের মর্যাদা, বিশ্বপ্রেমিক ও পালাবি কোথায়। তার শেষ ছবি ‘এক জবানের জমিদার, হেরে গেলেন এবার’। ছবিটি ২০১৬ সালের ২৬ আগস্ট মুক্তি পায়।

২০১২ সালে ১৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন হুমায়ূন ফরীদি।

ডব্লিউএস

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad