‘হোল পাঞ্চার’ দিয়ে সেজেছে গুগল ডুডল

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

 ‘হোল পাঞ্চার’ দিয়ে সেজেছে গুগল ডুডল

পরিবর্তন ডেস্ক ১:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৭

print
 ‘হোল পাঞ্চার’ দিয়ে সেজেছে গুগল ডুডল

বিশ্বের জনপ্রিয়তম সার্চ ইঞ্জিন গুগল। বছরের বিশেষ বিশেষ দিনে নানা ধরনের ডুডল তৈরি করে থাকে এই মার্কিন সংস্থা। আবার বিশেষ কোনো ব্যক্তির জন্মদিন বা মৃত্যুদিনেও গুগলের ডুডল নজর কাড়ে গোটা বিশ্বের। আর আজ ‘হোল পাঞ্চার’ নিয়েই তৈরি করা হয়েছে সেটি।

.

চলতি নভেম্বরেই ১৩১ তম জন্মদিনে পা দিল বিজ্ঞানের দৈনন্দিন জীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কারটি। সেজন্য সেজে উঠেছে গুগল ডুডলও।

google.co.in-এ গেলেই যা দেখতে পাওয়া যায়।

প্রায় ১০০ বছর আগে দৈনন্দিন জীবনে হোলপঞ্চার এর বেশ কদর ছিল সেসময় অনেকগুলো পৃষ্ঠাতে ছিদ্র করা কিংবা টিকিট পরীক্ষার পর সেটিতে একটি ছিদ্র করা অথবা হালফিলে দপ্তরের এক তাড়া কাগজকে একসঙ্গে বাঁধতে ছিদ্র করা- সবকিছুতেই ডাক পড়ে ছোট্ট যন্ত্রটির।

তবে কে এই যন্ত্রটির আবিষ্কর্তা, তা নিয়ে মতপার্থক্য রয়েছে।

গুগল অনুযায়ী, ১৮৮৬ সালের ১৪ নভেম্বর জার্মান বিজ্ঞানী ফ্রেডরিক সোয়েনেকেন এই যন্ত্রটি আবিষ্কার করে পেটেন্ট দাখিল করেন। তবে কেউ বলেন ১৮৮৫ সালে বেঞ্জামিন স্মিথ স্প্রিং দিয়ে তৈরি এই ধরনের একটি মেশিন তৈরি করেছিলেন।

আবার কারো মতে, ১৮৯৩ সালে চার্লস ব্রুকস নামে এক ব্যক্তি টিকিট পাঞ্চ করার জন্য এই ধরনের একটি যন্ত্র তৈরি করেছিলেন।

কে এটি আবিষ্কার করেছেন সেই তর্কে না গিয়ে একবার বলে নেওয়া যাক ‘হ্যাপি বার্থডে হোল পাঞ্চার!’

বিএইচ/

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad