নতুন রেফ্রিজারেটর বাজারে এনেছে এলজি

ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুন ২০১৭ | ১২ আষাঢ় ১৪২৪

নতুন রেফ্রিজারেটর বাজারে এনেছে এলজি

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ, জুন ২০, ২০১৭

print
নতুন রেফ্রিজারেটর বাজারে এনেছে এলজি

বিশ্বখ্যাত নেচার ফ্রেশ প্রযুক্তি সমৃদ্ধ নতুন নো ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর বাজারে নিয়ে এসেছে এলজি ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশ। এই প্রযুক্তি রেফ্রিজারেটরে শুধু শীতলতা নয় সতেজতাও নিশ্চিত করবে। আল্ট্রকুল, ময়েস্ট ব্যালেন্স ক্রিসপার, মাল্টি এয়ার ফ্লো এবং হাইজিন ফ্রেশ প্লাস বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ নেচার ফ্রেশ টেকনোলজির রেফ্রিজারেটরগুলো খাবারের সর্বোচ্চ সতেজতা নিশ্চিত করে। ৪৪ হাজার ৪২৫ থেকে ৮৪ হাজার ৯০০ টাকা মূল্যের বিভিন্ন মডেলের রেফ্রিজারেটর ক্রেতারা কিনতে পারবেন।

 

বিশেষ ফিল্টার ও ফ্যান সমৃদ্ধ হাইজিন ফ্রেশ প্লাস ফ্রিজের ভিতরের বাতাসকে শোষণ করে নেয়। শোষিত ওই বাতাস ৫ ধাপে ফিল্টার এবং ফ্যান ও টিউব হয়ে পরিশোধিত হয়ে আবার রেফ্রিজারেটরে ফেরত পাঠানো হয়। এটি ৯৯ দশমিক ৯৯৯ শতাংশ ব্যাকটেরিয়া দূর করে এবং খাবারের সর্বোচ্চ প্রাকৃতিক সতেজতা নিশ্চিত করে।

আল্ট্রাকুল বৈশিষ্ট্য বিদ্যুতিক লোডশেডিংয়ের সময়ও ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত রেফ্রিজারেটরের ভেতর আদর্শ ও সর্বোচ্চ শীতল পরিবেশ বজায় রাখে। বিশেষ জেল উপাদান থাকায় এটি খাবারের পচন রোধ করে এবং প্রয়োজনীয় ঠান্ডা নিশ্চিত করে। এলজি রেফ্রিজারেটরের বহুমুখী বাতাস প্রবাহ প্রক্রিয়া ফ্রিজের ভেতরের প্রতিটি স্থান-কোনায় সর্বোচ্চ ঠান্ডা রাখার নিশ্চয়তা দেয়।

ময়েস্ট ব্যালেন্স ক্রিসপার প্রযুক্তি ভেজিটেবল ড্রয়ারে সর্বোচ্চ আর্দ্রতা নিশ্চিত করে এবং ৭ দিন পর্যন্ত সবজিকে সতেজ রাখে। শক্তিশালী স্মার্ট লিনিয়ার কম্প্রেসরের কারণে বিদ্যুতের ভোল্টেজের উঠানামায়ও রেফ্রিজারেটর থাকে স্বাভাবিক ও সচল। এই কম্প্রেসর অন্তত ৩২ শতাংশ বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে। ক্রেতারা প্রতিটি কম্প্রেসরের উপর ১০ বছরের ওয়ারেন্টি পাবেন যা দীর্ঘস্থায়ী সমাধান দিবে।

জেডএস/এএস

print
 

আলোচিত সংবাদ