শিশু তোফাজ্জল হত্যায় চাচা-ফুফু-ফুফাসহ রিমান্ডে ৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

শিশু তোফাজ্জল হত্যায় চাচা-ফুফু-ফুফাসহ রিমান্ডে ৭

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ১:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

শিশু তোফাজ্জল হত্যায় চাচা-ফুফু-ফুফাসহ রিমান্ডে ৭

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে শিশু তোফাজ্জল হত্যা মামলায় ফুফু শিউলী বেগম (১৯),  চাচা লোকমান হোসেন (২১) ও সালমান হোসেন (২৫), ফুফা সেজাউলসহ ৭ জনের  রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

অন্য আসামিরা হলেন কালা মিয়া (৫৫), প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবি (৫৮) ও তার ছেলে সারোয়ার হাবিব রাসেল (২২)।

এর মধ্যে ফুফু শিউলী বেগম ও প্রতিবেশী সারোয়ার হাবিব রাসেলকে ৫ দিনের এবং চাচা লোকমান হোসেন ও সালমান হোসেন, ফুফা সেজাউল, তার বাবা কালা মিয়া ও  প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবিকে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

সুনামগঞ্জের কোর্ট পুলিশ বিষয়টি নিশ্চত করেছে।

সোমবার বেলা সাড় ১১টায় সুনামগঞ্জ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদলত তাহিরপুর জোনের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শুভদীপ পালের আদালতে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম শিশু তোফাজ্জলের ফুফু শিউলী বেগম ও প্রতিবেশী সারোয়ার হাবিব রাসেলের ১০ দিন ও চাচ লোকমান হোসেন ও সালমান হোসেন, ফুফা সেজাউল, তার বাবা কালা মিয়া ও  প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবির ৫ দিন করে রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত ২ জনের ৫ দিন ও ৫ জনের ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক।

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি বুধবার বিকেলে বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বাঁশতলা গ্রমের বাসিন্দা জুবায়ের হোসেনের ছেলে শিশু তোফাজ্জল হোসেন। পরদিন ৯ জানুয়ারি তাহিপর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এরপর কে বা কারা ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ চেয়ে একটি চিঠি শিশু তোফাজ্জলের বাবার বসতঘরের বারান্দায় ফেলে যায়। গত ১১ জানুয়ারি শনিবার বাড়ির অদূরে বস্তাবন্দী শিশুটির লাশ দেখতে পেয়ে তাহিরপুর থানায় খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

ওইদিন সন্ধ্যায়  শিশু তোফজ্জলের ফুফা সেজাউল, তার স্ত্রী শিউলী বেগম (শিশুর ফুফু), সেজাউলে বাবা কালা মিয়া, নিহত শিশু তোফাজ্জলের চাচা লোকমান হোসেন ও সালমান হোসেন (২৫), প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবি ও তার ছেলে সারোয়ার হাবিব রাসেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।

১১ জানুয়ারি রাতেই শিশুটির বাবা জুবায়ের হোসেন অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা করেন। মামলায় পুলিশ ওই ৭ জনকে আসামি করে আদালতে শিশু তোফজ্জলের ফুফু শিউলী বেগম ও প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবির ছেলে সারোয়ার হাবিব রাসেলের ১০ দিন করে এবং শিশুটির ফুফা সেজাউল, তার বাবা কালা মিয়া, নিহত শিশু তোফাজ্জলের চাচা লোকমান হোসেন ও সালমান হোসেন, প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হবির ৫ দিন করে রিমান্ড প্রার্থনা করে পুলিশ।

এইচআর

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও