বিয়ের প্রলোভনে শ্যালিকাকে ধর্ষণ, দুলাভাই আটক

ঢাকা, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ১৩ মাঘ ১৪২৬

বিয়ের প্রলোভনে শ্যালিকাকে ধর্ষণ, দুলাভাই আটক

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯

বিয়ের প্রলোভনে শ্যালিকাকে ধর্ষণ, দুলাভাই আটক

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অবিবাহিত শ্যালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাইকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আটক আবুল কাশেম ওরফে কাজিম স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দেন।

এর আগের দিন পুলিশ তাকে রাজধানীর মিরপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। সে মিরপুরে জনৈক কুদ্দুছ তালুকদারের বাসায় গেইট কিপার হিসেবে কাজ করছিল বলে পুলিশ জানায়।

সূত্র জানায়, ধর্ষনের পর গর্ভবতী শ্যালিকা পিংকি (ছদ্মনাম) কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। মৌলভীবাজার মডেল থানায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। (মামলা নং ১(১০)১৯)।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, প্রবাস ফেরত আবুল কাশেম ওরফে কাজিম ২ সন্তানের জনক। গত জানুয়ারি মাসে অবিবাহিত শ্যালিকাকে বিবাহের প্রলোভনে কৌশলে ধর্ষণ করে সে। একাধিকবার ধর্ষণের ফলে শ্যালিকা গর্ভবতী হয়ে যায়। বিবাহের চাপ দিলে প্রথমে তালবাহানা ও পরে স্থানীয় দরবার-সালিশের আয়োজন পর্যন্ত করা হয়। পরে ধর্ষক দুলাভাই গা-ঢাকা দেয়।

তিনি আরোও জানায়, পরবর্তীতে বাংলা সিনেমার কায়দায় ঢাকাস্থ মিরপুরের কোটিপতি জনৈক কুদ্দুছ তালুকদারের বাসায় গেইট কিপার হিসাবে কাজ নিয়ে অভিনয় শুরু করে আসামি কাশেম।

গত ৪ ডিসেম্বর মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই আবু ছায়েম, মির্জা মাহমুদুল করিম নাটকীয় কায়দায় অভিনয়কারী অভিযুক্ত কাশেমকে পল্লবী থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেন।

এমআইআই/জেডএস

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও