পর্যটকদের টানছে যাদুকাটা তীরের শিমুল ফুল

ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮ | ৫ ভাদ্র ১৪২৫

পর্যটকদের টানছে যাদুকাটা তীরের শিমুল ফুল

সুনামগঞ্জ (তাহিরপুর) প্রতিনিধি ১:০৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

পর্যটকদের টানছে যাদুকাটা তীরের শিমুল ফুল

ও শিমুল বন দাও রাঙ্গিয়ে মন কিংবা রক্ত শিমুল তপ্ত পলাশ দিলো ডাক সুনীল ভোরে। শপথের মশাল হাতে ছুটে চল নতুন প্রাতে। যুগে যুগে শিমুল নিয়ে এমন গান, কবিতা লিখেছেন অনেক কবিই। তাইতো কবির ভাবনার বারতা নিয়ে এই বসন্তে যাদুকাটার তীরে হাজারো শিমুলের ডালে মেলা বসেছে রক্তিম শিমুল ফুলের।

সারিবদ্ধভাবে লাগানো শিমুল গাছগুলোয় ফুটে থাকা শিমুলের লাল পাপড়ির মনোমুগ্ধকর সৌন্দর্যে মুগ্ধ হবেন না এমন ব্যক্তি খুজে পওয়া দুষ্কর।

বর্ষায় সারিবদ্ধ শিমুল বাগানে সবুজ পাতার সুনিবিড় ছায়া যেমন পর্যটকদের দিনের ক্লান্তি ভুলিয়ে দেয়, তেমনি বসন্তে ডালে ডালে ফুটে থাকা লাল ফুল আন্দোলিত করে সেই সাথে রাঙ্গিয়ে দেয় দর্শনার্থীদের মন। তাইতো এ ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রতিদিন যাদুকাটার তীরে ভীর জমান শত শত পর্যটক। ফেব্রুয়ারির প্রথম পপ্তাহ থেকেই গাছে গাছে ফুল ফুটতে শুরু করে।

যাদুকাটা নদীর তীরে মানিগাঁও গ্রামে দেশের সবচেয়ে বড় শিমুল বাগান। দেশে এত বড় পরিসরে আর কোনো শিমুল বাগান আছে জানা নেই।

বসন্তের প্রথম দিনে বাগান ঘুরতে এসেছেন মম মোস্তফা। তিনি জানান, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে কিছু শিমুল গাছ থাকলেও এক সাথে এত গাছ, এত ফুলের দেখা কোথাও মেলেনি। তাই শুধু মাত্র একসাথে এত ফুল দেখতে তিনি শিমুল বাগানে এসেছেন।

কান্ট্রি ট্যুরিজম ট্রাভেল গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক রাসেল ভুঁইয়া জানান, বাগানে ফুল ফোটার মুহুর্তটা অন্য রকম। শত ব্যস্ততার মধ্যেও কোনো ভাবেই এর সৌন্দর্যটা মিস করতে চাই না।

জানা যায়, ২০০২ সালে শুধু মাত্র বাণিজ্যিক ভাবনা থেকেই তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের প্রয়াত চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন তার ইউনিয়নের পাশে উত্তর বড়দল ইউনিয়নে মানিগাঁও গ্রামে যাদুকাটা নদীর পশ্চিম পারে ৯৭ বিঘা অনাবাদি ধু ধু বালিয়াড়িতে শিমুল বাগান তৈরী করেন। বাগানটিতে সারিবদ্ধ ভাবে ৩ হাজার শিমুলের চারা রোপন করা হয়। ১৫ বছরের ব্যবধানে বাগানের শিমুল গাছগুলো আজ অনেক বড় হয়েছে, পত্র পল্লবে পেখম মেলছে, গাছে গাছে প্রস্ফুটিত ফুলে লালে লাল হয়ে যায় যাদুকাটা নদীর তীর। আর এ নান্দনিক সৌন্দর্য উভোগ করতে প্রতিদিন যাদুকাটার নদীর তীরে বাড়ছে পর্যটকদের ভীড়। সাথে নাটক সিনেমার সুটিং করতেও আসছেন পরিচালক ও শিল্পীরা।



প্রয়াত চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনের মেয়ে সেলিনা আবেদীন বর্তমান সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য। তিনি জানান, শিমুল বাগানই আমার প্রয়াত বাবাকে সারা দেশের মানুষের সাথে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে।

যেভাবে যাবেন :

ঢাকা থেকে সরাসরি সুনামগঞ্জ। সুনামগঞ্জ শহরে প্রবেশ দ্বার আব্দুজ জহুর সেতুতে নেমে সিএনজি, বাইক কিংবা যে কোনো গাড়ি করে তাহিরপুর লাউড়ের গড় বাজার সেখান থেকে নৌকায় যাদুকাটা নদী পার হলেই শিমুল বাগন।

তাছাড়া তাহিরপুর উপজেলা সদর হয়ে মোটরসাইকেলে করেও শিমুল বাগান যাওয়া যায়।

বিএইচবি/এসএফ