২৫ হাজার কোটি টাকা ফিরে পেল পুঁজিবাজার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

২৫ হাজার কোটি টাকা ফিরে পেল পুঁজিবাজার

পরিবর্তন প্রতিবেদন ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২০

২৫ হাজার কোটি টাকা ফিরে পেল পুঁজিবাজার

অব্যাহত দর পতনে ১৪ জানুয়ারি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক ৪ হাজার পয়েন্টের কাছাকাছি চলে এসেছিল। কিন্তু ১৬ ডিসেম্বর পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্টদের সাথে বৈঠকে ৬টি নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর এক সপ্তাহ অতিক্রম করেছে পুঁজিবাজার।

বিনিয়োগকারীদের ক্রয় প্রবণতায় লেনদেন মন্দা কাটিয়ে ছন্দে ফিরেছে পুঁজিবাজার। সপ্তাহের সর্বশেষ কার্যদিবসে (২৩ জানুয়ারি) পুঁজিবাজারের সার্বিক লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা অতিক্রম করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত এক সপ্তাহে ডিএসই’র বাজার মূলধন বেড়েছে ২৫ হাজার ৬৯৮ কোটি ৫৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। ডিএসই’র সপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনা করে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যালোচনা দেখা যায়, সপ্তাহের শুরুতে (১৯ জানুয়ারি) ডিএসই’র বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ১৯ হাজার ৩৭০ কোটি ৮৪ লাখ ৫৭ হাজার ৭২৮ টাকা। কিন্তু সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে তা বেড়ে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬৯ কোটি ৪২ লাখ ২৩ হাজার ৯৮০ টাকা।

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও ফান্ডগুলোর ৯১ শতাংশের দর বেড়েছে। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৬০টি কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩২৮টির, দর কমেছে ২৩টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ৭টি প্রতিষ্ঠানের। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও ফান্ডগুলোর ৬০টির, দর কমেছে ২৭৭টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ২১টি প্রতিষ্ঠানের।

সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে ২ হাজার ২৬৫ কোটি ৭৮ লাখ ৯৯ হাজার ৮৬৯ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে ১ হাজার ৩২০ কোটি ৭৩ লাখ ৭ হাজার ৯২১ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছিল। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই’র লেনদেন বেড়েছে ৭১.৫৬ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৪৫৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ২৬৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে গড় লেনদেন বেড়েছে ৭১.৫৬ শতাংশ।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই’র সার্বিক মূল্যসূচক বেড়েছে ৩৬৪.০৬ পয়েন্ট। সপ্তাহের শুরুতে ডিএসই’র সার্বিক মূল্যসূচক ছিল ৪১৪৯ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে তা ৪৫১৩ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে। এসময় শরীয়াহ্ ভিত্তিক কোম্পানিগুলোর মূল্যসূচক ডিএসইএস বেড়েছে ৯৫.২০ পয়েন্ট।

আলোচ্য সময়ে ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এ’ ক্যাটাগরির শেয়ারের দখলে ছিল ৭৯ দশমিক ৩৭ শতাংশ। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৭৯৮ কোটি ৪০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৬৯ টাকার। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান ছিল ১ হাজার ৩০২ কোটি ৭২ লাখ ৩০ হাজার ৭৪৮ টাকার।

এদিকে, গত সপ্তাহে ‘বি’ ক্যাটাগরির শেয়ারের অংশগ্রহণ ছিল ১২.০৭। এসব শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৭৩ কোটি ৪৮ লাখ ২৬ হাজার টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৪ কোটি ১৩ লাখ ৪ হাজার ১৫৯ টাকা।

জেডএস

 

অর্থনীতি : আরও পড়ুন

আরও