‘খায়রুল’ কমিশনের পদত্যাগ চেয়ে বিনিয়োগকারীদের মানববন্ধন

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

‘খায়রুল’ কমিশনের পদত্যাগ চেয়ে বিনিয়োগকারীদের মানববন্ধন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

‘খায়রুল’ কমিশনের পদত্যাগ চেয়ে বিনিয়োগকারীদের মানববন্ধন

ভয়াবহ দরপতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন পুঁজিবাজারের  বিনিয়োগকারীরা।

মঙ্গলবার মূল্যসূচক থেকে প্রায় ৯২ পয়েন্ট কমার পর দুপুর ২ টায় বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে মতিঝিলে অবস্থিত ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) আগের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন বিনিয়োগকারীরা।

বিক্ষোভে প্রতিবারের মতো বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেনের পদত্যাগসহ কমিশন পুনর্গঠনের দাবি জানান সংগঠনটির নেতা ও কর্মীরা।

পাশাপাশি কৃত্তিম আর্থিক প্রতিবেদনের মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে আইপিও এবং রাইট শেয়ারের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া উদ্যোক্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সরকারে সুদৃষ্টি কামনা করা হয়।

মানববন্ধনে থাকা বিনিয়োগকারী মোশাররফ হোসেন বলেন, নিয়মিত দরপতনে বাজারের প্রত্যেক বিনিয়োগকারীই লোকসানে রয়েছে। নতুন বছরের দরপতনে প্রতিদিন পুঁজির ৫ থেকে ৮ শতাংশ হারিয়ে যাচ্ছে। এমন অবস্থা চলতে থাকলে বিনিয়োগের এক টাকাও ফিরে পাব না।

তিনি বলেন, নিয়মিত দরপতন হচ্ছে , ২০১৯ সাল থেকেই দর পতন হচ্ছে তবুও নিয়ন্ত্রক সংস্থা এর কারণ খুঁজে বের করতে পারে নি। এমন অযোগ্য কমিশন পুঁজিবাজারের কোনো প্রয়োজন নেই। তাদের আজই পদত্যাগ করা উচিত।

বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান-উর-রশীদ চৌধুরী বলেন, পুঁজিবাজারের বিভিন্ন দরপতনে আমরা ডিএসই’র সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করায় গত ২৭ আগস্ট ডিএসই আমাদের নামে জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছিল। কিন্তু অব্যাহত দরপতনে আমরা আর বসে থাকতে পারলাম না।

তিনি বলেন, পুঁজিবাজারকে ইতিবাচক অবস্থানে ফিরিয়ে নিতে বর্তমান ‘খায়রুল’ কমিশনের চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেনসহ প্রত্যেক কমিশনারকে পদত্যাগ করতে হবে।

বিএসইসি’র বর্তমান কমিশন পদত্যাগ করলেই বাজারে স্থিতিশীলতা ফিরবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিনিয়োগকারীদের আস্থা সংকটে পুঁজিবাজারে নিয়মিত দরপতন হচ্ছে। বর্তমান কমিশন পদত্যাগ করলে বিনিয়োগকারীরা আস্থা ফিরে পাবে। এর পরে ধীরে ধীরে বাজার ঘুরে দাঁড়াবে।

তিনি বলেন, পচা আইপিও এবং কৃত্তিম আর্থিক প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে কোম্পানি তালিকাভুক্ত করায় বাজার এমন দুসময় অতিক্রম করছে।

জেডএস/এইচআর

 

অর্থনীতি : আরও পড়ুন

আরও