৫ কার্যদিবস পর পুঁজিবাজারের সূচকের উত্থান

ঢাকা, রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৬

৫ কার্যদিবস পর পুঁজিবাজারের সূচকের উত্থান

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:০৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২০

৫ কার্যদিবস পর পুঁজিবাজারের সূচকের উত্থান

টানা পাঁচ কার্যদিবসে ধারাবাহিক দর পতনের পর রোববার ঘুরে দাঁড়িয়েছে পুঁজিবাজার। দিনশেষে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক বেড়েছে ১৫.০৫ পয়েন্ট। অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক বেড়েছে ২৬.২১ পয়েন্ট বেড়েছে।

এদিকে, সূচকের উত্থান হলেও ডিএসইর সার্বিক লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় প্রায় ৪০ কোটি টাকা হ্রাস পেয়েছে। রোববার দিনশেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৬০ কোটি ৮২ লাখ টাকা। কিন্তু চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৫ কোটি টাকা বেড়ে ১৫ কোটি ৫৭ লাখ টাকায় স্থিতি পেয়েছে। ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৯টি, দর কমেছে ১২২টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ৫৩টি প্রতিষ্ঠানের। দিনশেষে ডিএসইতে ৯ কোটি ১৮ লাখ ২৫ হাজার ৩৮৮টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এদিন ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ২৬০ কোটি ৮২ টাকা। এর আগের কার্যদিবসে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩০১ কোটি ৪১ টাকা।

লেনদেন শেষে ডিএসই’র সার্বিক মূল্য সূচক বেড়েছে ১৫.০৫ পয়েন্ট। এসময় ডিএসইএক্স সূচক ৪২১২ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে।  অপরদিকে, ডিএসইএস ও ডিএস-৩০ সূচক যথাক্রমে ৪.২৪ ও ৯.৩২ পয়েন্ট বেড়েছে।

দিনশেষে ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে লাফার্জ হোলসিম বাংলাদেশ। দিনশেষে কোম্পানিটির ২৪ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। টার্নওভার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল খুলনা পাওয়ার, কোম্পানিটির ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মধ্যে দিয়ে টার্নওভার তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে এডিএন টেলিকম।

টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো- নর্দান জুট, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপ ইয়ার্ড, বিকন ফার্মা, পাইনিয়র ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল ফিড, স্টার্ন্ডাড ইন্স্যুরেন্স ও ইউনাইটেড পাওয়ার।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হওয়া ২৩৯টি কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১০টির, দর কমেছে ৯২টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ৩৭টি প্রতিষ্ঠানের। এসময় সিএসইতে ১৫ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

দিনশেষে সিএসই’র সাধারণ মূল্য সূচক আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২৬.২১ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৭৬১ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে।

জেডএস

 

অর্থনীতি : আরও পড়ুন

আরও