২৩ প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার শোকজ

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০ | ১১ মাঘ ১৪২৬

২৩ প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার শোকজ

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৪৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৮

২৩ প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার শোকজ

পুঁজিবাজারে শেয়ার কারসাজি করার চেষ্টা করায় ১৩ কোম্পানি ও ৮ সিকিউরিটিজ হাউজকে সতর্ক করেছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। পাশাপাশি আইন লঙ্ঘনের দায়ে ৫ কোম্পানিকে জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

বিএসইসি’র এনফোর্সমেন্ট বিভাগ গত সেপ্টেম্বরে এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এমন ব্যবস্থা নিয়েছে। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সতর্ক করা কোম্পানিগুলো হলো— বিএসআরএম লিমিটেড, বিকন ফার্মা, সিএপিএম (ক্যাপিটাল এন্ড অ্যাসেট পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট) কোম্পানি লি:, দেশবন্ধু পলিমার, জেনারেশন নেক্সট, ইফাদ গ্রুপ, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক, মেঘনা পিইটি ইন্ডাস্ট্রিজ, নূরানী ডাইং, প্যাসেফিক ডেনিমস, রহিমা ফুড, ইউনাইটেড এয়ার এবং নিরীক্ষক শফিক মিজান রহমান এন্ড অগাস্টিন।

বিএসইসি জানায়, সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘনের কারণে এসব প্রতিষ্ঠানের পর্ষদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও কোম্পানি সেক্রেটারিকে শুনানিতে ডাকা হয়েছিল। শুনানিতে তারা সজ্ঞানে আইন লঙ্ঘন করেননি বলে জানান। ভবিষ্যতে এমন ভুল হবে না মুচলেকা দেয়ায় কমিশন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা না নিয়ে শুধুমাত্র সতর্ক করেছে। তবে বিকন ফার্মার ব্যাখ্যায় কমিশন পুরোপুরি সন্তুষ্ট হয়নি। তাই আইন পরিপালন নিশ্চিত করেছে কিনা জানতে তাদেরকে আগামী ২৯ অক্টোবর বেলা ১১টায় ফের শুনানিতে ডাকা হয়েছে।

আর ইফাদ গ্রুপ শেয়ার ব্যবসায় অনিয়ম করায় তাদের সতর্ক করা হয়েছে। ইফাদ গ্রুপের বিও অ্যাকাউন্ট প্রাইম ইসলামী সিকিউরিটিজে রয়েছে।

সতর্ক করা সিকিউরিটিজ হাউজগুলোর মধ্যে রয়েছে— বি-রিচ লি:, এআইবিএল ক্যাপিটাল মার্কেট সার্ভিস, মিরপুর সিকিউরিটিজ, ব্যাংক এশিয়া সিকিউরিটিজ, ঢাকা ব্যাংক সিকিউরিটিজ, এমটিবি সিকিউরিটিজ, এবি ইনভেস্টমেন্ট লি: এবং প্রাইম ইসলামী সিকিউরিটিজ।

কমিশন জানায়, গ্রাহকের হিসাবে নিয়ম বহির্ভুত লেনদেন করায় তাদেরকে শুনানিতে তলব করা হয়েছিল। ব্যাখ্যায় তারা জানান, অসতর্কতার কারণে এমনটা ঘটেছে। ভবিষ্যতে এমন ভুল হবে না এই শর্তে তাদেরকে শুধুমাত্র সতর্ক করা হয়েছে।

এদিকে নির্ধারিত সময়ে আর্থিক প্রতিবেদন জমা না দেওয়ার কারণে ওটিসি’র বেঙ্গল ফাইন সিরামিকসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সকল পরিচালককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা, কেয়া কসমেটিকসের সকল পরিচালককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া ইনসাইডার ট্রেডিংয়ের কারণে ডোরিন পাওয়ারের কিছু কর্মকর্তাকে বড় ধরনের জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি গ্রাহক হিসাবে নিয়মবহির্ভুত লেনদেন করায় ডাইনামিক সিকিউরিটিজকে দুই লাখ টাকা এবং আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লি:-কে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জেডএস/এসবি

 

শেয়ারবাজার: আরও পড়ুন

আরও