ভারতে দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান, রয়েছে ৩ হাজার টন সোনা
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৫ চৈত্র ১৪২৬

ভারতে দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান, রয়েছে ৩ হাজার টন সোনা

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:১২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

ভারতে দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান, রয়েছে ৩ হাজার টন সোনা

প্রায় ৩ হাজার টন স্বর্ণের মজুত সম্বলিত দুটি স্বর্ণখনির সন্ধান মিলেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যে। বর্তমানে যা দেশটিতে সংরক্ষিত মোট স্বর্ণের প্রায় পাঁচ গুণ।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জেলা সোনভদ্রে সোন পাহাড়ি ও হরদি ব্লক এলাকায় সোনার খনি দু’টির সন্ধান পাওয়া গেছে। দীর্ঘদিন খোঁড়াখুঁড়ির পর ভারতীয় ভূ-তত্ত্ব সর্বেক্ষণ (জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া) সম্প্রতি ওই স্বর্ণখনির সন্ধান পেয়েছে।

সোন পাহাড়ির খনিতে ২,৯৪৩.২৬ টন সোনা রয়েছে বলে ধারণা গবেষকদের। হরদি ব্লক এলাকার খনিটিতে রয়েছে প্রায় ৬৪৬.১৬ কেজি সোনা। সবমিলিয়ে যার বাজারমূল্য প্রায় ১২ লক্ষ কোটি টাকা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতে অর্থনৈতিক ঝিমুনি নিয়ে একদিকে যখন আলোচনা তুঙ্গে, ঠিক সেইসময়েই ‘কুবেরের ধনে’র সন্ধান মিলল ভারতের বুকে।

ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল প্রদত্ত হিসাব অনুযায়ী, এই মুহূর্তে সারা দেশে ৬২৬ টন সোনা সংরক্ষিত রয়েছে। অর্থাৎ সোনভদ্রের দু’টি খনিতে তার চেয়ে পাঁচ গুণ বেশি সোনা রয়েছে। টেন্ডারের মাধ্যমে খুব শীঘ্রই সেগুলি নিলাম করা হবে।

ইংরেজ শাসকদের হাত ধরেই সোনভদ্রে প্রথম সোনার খোঁজ শুরু হয়। ১৯৯২-৯৩ নাগাদ ভারত সরকার সেখানে খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করে। তার পর গত দু’দশকেরও বেশি সময় ধরে সোনার সন্ধান অব্যাহত ছিল সেখানে। তাতেই  জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া ওই দুই খনির সন্ধান পেয়েছে।

ভারতে সোনার ব্যবহার মূলত গহনার জন্যই। প্রতি বছর বিদেশ থেকে সোনা আমদানি করে দেশটি। এই বিপুল পরিমাণ সোনা হাতে পেলে আমদানি বাবদ খরচ কমানো যাবে বলে আশাবাদী ভারতের শিল্পমহল।

এমএফ/

 

আন্তর্জাতিক: আরও পড়ুন

আরও