তোপের মুখে পোপ!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৪

তোপের মুখে পোপ!

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:১৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৮

print
তোপের মুখে পোপ!

পোপের আসন্ন সফর উপলক্ষ্যে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ চিলিতে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা শনিবার এক প্রতিবেদনে জানায়, বিক্ষোভকারীরা দেশটির বেশ কয়েকটি চার্চ’এ ভাংচুর চালিয়েছে। শুধু তাণ্ডব চালিয়েই বিক্ষোভকারীরা ক্ষান্ত হয়নি। চার্চগুলোর পুরোহিতদের হুমকি দিয়ে বলেছে, পোপ আসলে এরপর সরাসরি শরীরে আগুন বোমা নিক্ষেপ করা হবে।

আল জাজিরা জানায়, আগামী সোমবার ক্যাথলিক সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের চিলি সফরের কথা রয়েছে। কিন্তু গত শুক্রবার চিলি’র অন্তত চারটি গির্জায় এর প্রতিবাদে হামলা চালায় বিক্ষোভকারীরা।

গির্জাগুলোয় বিক্ষোভকারীরা আগুন বোমা নিক্ষেপ করে। এরপর গির্জাগুলোয় দায়িত্বরতদের কাছে বিবৃতি পৌঁছে দেয়। সেখানে বলা হয়, এরপরও যদি পোপ আসেন তবে এসব আগুনের বোমা সরাসরি তোমাদের পোশাকে নিক্ষেপ করা হবে।

অবশ্য হামলা ও ভাংচুর চালানো হলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছে ল্যাতিন আমেরিকার সংবাদমাধ্যম টেলেসর। ঘটনার পর বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে চিলি কর্তৃপক্ষ। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

এদিকে, গির্জা ভাংচুরের ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন চিলির প্রেসিডেন্ট মিশেল ব্যাচেলেট। তবে যতো বিক্ষোভই হোক, নির্ধারিত দিনে পোপকে স্বাগত জানানো হবে বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির সুবিধা বঞ্চিত ‘মাপুচে’ সম্প্রদায়ের মানুষেরাই মূলত পোপের সফরের বিরোধীতা করছে। চিলিতে এই আদিবাসী সম্প্রদায়ের প্রায় ৩০ লাখ মানুষ প্রত্যন্ত অঞ্চলে দরিদ্র অবস্থায় দিন কাটায়। আর এর পেছনে তারা ঐতিহাসিক কারণে খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে দায়ি করে থাকে।

কেবিএ

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad