জেরুজালেমে দূতাবাস খোলার ঘোষণা গুয়েতেমালার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৪

জেরুজালেমে দূতাবাস খোলার ঘোষণা গুয়েতেমালার

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:১২ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৭

print
জেরুজালেমে দূতাবাস খোলার ঘোষণা গুয়েতেমালার

জেরুজালেমে দূতাবাস খোলার ঘোষণা দিয়েছেন গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট জিম্মি মোরালেস। রোববার ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট নেতানিয়াহুর সঙ্গে ফোনে কথা বলার পর তিনি তার ফেসবুকে এ ঘোষণা দেন। বর্তমানে তেলআবিবে দেশটির দূতাবাস রয়েছে। খবর রয়টার্স, বিবিসি।মোরালেস তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘আমাদের সঙ্গে বেশ ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। আমরা শুরু থেকেই ইসরাইল রাষ্ট্রের পক্ষে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের আলোচনার গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তর করা। আমি এ ব্যাপারে চ্যাঞ্চেলরকে দিক-নির্দেশনাও দিয়েছি।’

তবে কখন গুয়েতেমালার দূতাবাস তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হয়ে হবে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি মোরালেস।

প্রসঙ্গত, গত ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন এবং তেলআবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন। ট্রাম্পের ওই ঘোষণার প্রতি সমর্থন জানাতেই এমন ঘোষণা দিলেন মোরালেস।

এর আগে ট্রাম্পের ঘোষণা নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে যে ভোটাভোটি হয়, সেখানেও মার্কিন প্রেসিডেন্টের পক্ষে ভোট দেয় গুয়েতেমালা। যদিও প্রস্তাবটি নাকচ করে দেয় ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদ।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ওই ভোটাভোটিতে ১২৮টি দেশ ট্রাম্পের বিপক্ষে ভোট দেয়। আর নয়টি রাষ্ট্র তার প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়, যার মধ্যে গুয়েতেমালা একটি। ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকে ৩৫টি দেশ।

উল্লেখ্য, গুয়েতামালার প্রেসিডেন্ট এমন সময় এ ঘোষণা দিলেন যখন ভ্যাটিক্যান বড়দিনের আগ মুহূর্তে ট্রাম্পের ঘোষণাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। এ ছাড়া জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছেন ফিলিস্তিনের খ্রিস্টান নেতারা। তারা বলেছেন, এ সিদ্ধান্ত বিপজ্জনক ও অপমানকর।

আরপি

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad