ফেসবুক কর্তৃপক্ষ পোস্ট কেন ডিলিট করে?

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ পোস্ট কেন ডিলিট করে?

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:২১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০১৮

print
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ পোস্ট কেন ডিলিট করে?

ফেসবুক সাইটের মডারেটররা যে নীতিমালা অনুসরণ করে ফেসবুকের বিভিন্ন কনটেন্ট অনুমোদনযোগ্য কিনা পরীক্ষা করেন তা অবশেষে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। একই সাথে কোনো কনটেন্ট ডিলিট বা ব্লক করে দেয়া হলে সেটি পুনরায় ফেসবুকে প্রকাশ করার জন্য আপিলের ব্যবস্থাও চালু করা হয়েছে।

অর্থাৎ এখন থেকে কোনো পোস্ট সরিয়ে দেয়া হলে তা কেন ডিলিট করা হলো তা পোস্টদাতা আরও পরিষ্কারভাবে জানতে পারবেন এবং নীতিমালা ভঙ্গ না হলে এটি ফিরিয়ে আনার আবেদন করতে পারবেন।

বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ইস্যুতে আন্দোলনরত কর্মীরা ফেসবুকের কনটেন্ট সরানোর নীতিমালা স্পষ্ট করে জানানোর দাবী করে আসছিলেন। এতদিন ফেসবুক তাতে কর্ণপাত না করলেও, সম্প্রতি অনেকগুলো কারনে তীব্র সমালোচনার মুখোমুখি হয় সাইটটি। এর পরপরই তাদের সাইট পরিচালনার পদ্ধতি সাধারণ মানুষের কাছে আরও স্পষ্ট করে তোলার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেয় তারা।

প্রায় ২৭ পৃষ্ঠা জুড়ে বর্ণনা করা 'কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড' বা ব্যবহারকারী জনগোষ্ঠীর আদর্শ আচরণের নির্দেশনাগুলো ছয়টি অংশে বিভক্ত। প্রতিটি বিভাগে একটি নির্দিষ্ট ধরনের কনটেন্ট কী কী কারনে ফেসবুকে অগ্রহণযোগ্য হয়ে উঠতে পারে বর্ণনা করা হয়েছে।

এই ছয়টি ক্যাটাগরি হচ্ছে: 'সহিংসতা ও অপরাধমূলক আচরণ (Violence and Criminal Behavior)' 'নিরাপত্তা (Safety)', 'আপত্তিকর পোস্ট (Objectionable Content)', 'সততা ও বিশ্বাসযোগ্যতা (Integrity and Authenticity)', 'সৃষ্টিশীল কাজের কপিরাইট মেনে চলা (Respecting Intellectual Property)' এবং "কনটেন্ট সম্পর্কিত অনুরোধ (Content-Related Requests)'।

ফেসবুকের গ্লোবাল পলিসি ম্যানেজমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট মনিকা বিকার্টের মতে, এসব নিয়ম আগে থেকেই চালু ছিল, কোনো পরিবর্তন করা হয়নি। নীতিমালা ভঙ্গের ক্ষেত্রে তারা কীভাবে পদক্ষেপ গ্রহণ করেন তা জানাতে তারা এটি এখন প্রকাশ করছেন।

ইউজারদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হওয়া নিয়ে পর পর কয়েকটি কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়ে ফেসবুক। এর ফলে সাইটটির পরিচালনায় স্বচ্ছতার বিষয়টি প্রশ্নবিদ্ধ হয়।

বেশ কয়েক বছর ধরেই ফেসবুকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কনটেন্টের বিষয়ে বৈষম্যের অভিযোগ করে আসছিলেন অনেক ইউজার। এখন লিখিত নীতিমালা থাকার কারনে কোনো পোস্ট অন্যায়ভাবে ফেসবুক থেকে ডিলিট করে দেয়া হলে তারা ওই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ  করতে পারবেন।

ফেসবুক মে মাসে জার্মানি, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, ভারত, সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাষ্ট্রে তাদের ইউজারদের সরাসরি মন্তব্য নেয়ার জন্য ফোরামের আয়োজন করতে যাচ্ছে।

ফেসবুকের সম্পূর্ণ নীতিমালাটি দেখা যাবে এই লিংকে: https://www.facebook.com/communitystandards/।

এমআর/

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad