তারপরেতে দেখেন ভালো...

ঢাকা, সোমবার, ২১ মে ২০১৮ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

তারপরেতে দেখেন ভালো...

কামরুল হিরন ২:৩৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০১৮

print
তারপরেতে দেখেন ভালো...

তারপরেতে দেখেন ভালো স্মৃতিসৌধ চলে এলো; শহীদ মিনার চলে গেলো; বঙ্গবন্ধু আসবেন পরে... এমন কথা শুনে বুঝতে আর বাকি থাকে না চলছে কোথাও গ্রাম বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বায়স্কোপ প্রদর্শনী।আধুনিকতার উৎকর্ষতায় যদিও বায়স্কোপ প্রায় বিলুপ্তির পথে। তবুও হঠাৎ কোনো গ্রামীণ মেলায় চোখে পড়ে যায়, একটি বাক্সকে ঘিরে কিছু বাচ্চা ছেলে-মেয়ে বায়স্কোপ উপভোগ করছে। আবার পাশেই বান্দরের (বানর) খেলা দেখতে ভিড় জমাচ্ছে সবাই। বেলুন কেনার বায়না ধরেছে কেউ কেউ।

কিন্তু ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় যদি এমন আয়োজন লক্ষ্য করা যায়! স্বাভাবিকভাবেই ইচ্ছে জাগে মনে, দেখিতো আমাদের ছেলেবেলায় দেখা সেইসব দৃশ্যই কি এখনো শোভা পাচ্ছে বায়স্কোপে, নাকি কোনো পরিবর্তন এসেছে।

তাই এ মেলায় আসা সব বয়সী মানুষকেই বায়স্কোপ উপভোগ করতে দেখা যাচ্ছে এবং কোনো টাকা ছাড়াই।

গাজীপুর থেকে আসা মাঝ বয়সী সুমন সরকার তার পরিবার নিয়ে বাক্সে দু’চোখ লাগিয়ে বায়স্কোপ দেখা শেষে জানালেন, আমাদের ছেলে বেলায় যেসব দৃশ্য দেখানো হতো, এখনো সেসব দৃশ্যই দেখানো হচ্ছে। তবে সময়ের সঙ্গে কিছু পরিবর্তন তো এসেছেই।

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এসে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের গ্রামীণ মেলার এমন স্বাধ নেয়ার সুযোগ করে দিয়েছে মার্কস ব্র্যান্ডের প্যাভিলিয়নটি।

‘গ্রামের শতবর্ষী এক স্বর্ণবৃক্ষের তলায় জমে উঠেছে মেলা’ এই ভাবনা ফুঁটিয়ে তুলতেই প্যাভিলিয়নটিকে এভাবে সাজানো হয়েছে বলে জানালেন দায়িত্বরত প্রোডাক্ট প্র্রমোশন কর্মকর্তা কাজী ইলিয়াস।

তিনি বলেন, শহুরে মানুষকে গ্রামীণ মেলার সঙ্গে পরিচয় ঘটাতেই আমাদের এই ভাবনা।

বহু পুরানো সেই গাছের উপর একটি বাড়িও রয়েছে। দেখা গেলো সেখানে বসে কিছু ডাক্তার চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন, তাও আবার ফ্রি-তে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কাজী ইলিয়াস বলেন, আমাদের ব্র্যান্ডের পণ্য স্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তাই এ প্যাভিলিয়নে আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীরা চাইলেই রক্তে সুগার বা প্রেসার আছে কিনা, বডি ম্যাস ইনডেক্স (বিএমআই), বোন ডেনসিটি টেস্ট করানোসহ পেতে পারেন অভিজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা মেডিক্যাল এবং নিউট্রিশন অ্যাডভাইস।

আর এর জন্য কাউকে টাকা দিতে হবে না, যোগ করেন তিনি।

কেএইচ/এসবি

 
.




আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad