রংপুর সিটিতে লাঙ্গলে ধরাশায়ী নৌকা-ধানের শীষ

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৪

রংপুর সিটিতে লাঙ্গলে ধরাশায়ী নৌকা-ধানের শীষ

এম এম কবীর ও সুশান্ত ভৌমিক, রংপুর থেকে ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২২, ২০১৭

print
রংপুর সিটিতে লাঙ্গলে ধরাশায়ী নৌকা-ধানের শীষ

রংপুর সিটি করপোরেশনে (রসিক) এটা ছিল দ্বিতীয় নির্বাচন। তবে দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো এই সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বৃহস্পতিবার। আর এতেই নিজ ঘাঁটিতে বাজিমাত করেছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ আর মাঠের বিরোধী দল হিসেবে পরিচিত বিএনপিকে ধরাশায়ী করে জয় ছিনিয়ে এনেছেন জাপার মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

রসিক নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ছিলেন সাতজন। তবে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা জাপার মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু এবং বিএনপির কাওছার জামান বাবলার মধ্যে হবে এটাই অনুমেয় ছিল।

এই নির্বাচনে মোট ১৯৩টি কেন্দ্রে লাঙ্গল প্রতীকে ১,৬০,৪৮৯ ভোট পেয়ে ভূমিধস বিজয় পান জাপার মোস্তফা।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী সদ্য সাবেক মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু পেয়েছেন ৬২,৪০০ ভোট। তিনি নিজ কেন্দ্রেই জাপা প্রার্থীর কাছে হেরেছেন।

বিএনপির প্রার্থী কাওছার জামান বাবলা বলতে গেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আসতে পারেননি। তিনি ভোট পেয়েছেন মাত্র ৩৫,১৩৬ টি।

এর আগে লাঙ্গলের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত রংপুর সিটিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয় সকাল ৮টায়। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে ভোটগ্রহণ। মোট ১৯৩টি কেন্দ্রে হয় ভোটগ্রহণ।

রসিকে মোট ভোটার ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৯৯৪ জন। নির্বাচনে প্রায় ৭০ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা দিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র সরকার।

এদিকে কারচুপির অভিযোগে রাতে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপির প্রার্থী কাওছার জামান বাবলা। তিনি বলেন, ‘টেস্ট কেস হিসেবে বিএনপি এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে। কিন্তু প্রমাণিত হয়েছে এই নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।’



এর আগে ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, ‘তাদের পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে যেতে দেয়া হয়নি, অনেককে কেন্দ্র থেকে ক্ষমতাসীনরা বের করে দিয়েছেন।’

এই অভিযোগের পাল্টা জবাব দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। তিনি বলেন, ‘ভোটে জিততে পারবে না জেনেই বিএনপি এমন অভিযোগ করছেন।’

তবে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে জানিয়ে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘রংপুরে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হয়েছে। আমরা মডেল নির্বাচন চেয়েছিলাম, মডেল নির্বাচন হয়েছে।’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বিএনপির অভিযোগ নাকচ করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘রসিকে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে। ভোটাররা নির্ভয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছেন। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।’

প্রথম রসিক নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু। ওই নির্বাচন দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত না হলেও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ছিলেন তিনি।

নির্বাচনে বিজয়ী দলকে আগাম অভিনন্দন জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটি আওয়ামী লীগের নির্বাচনী পরাজয় হলেও রাজনীতির বিজয় হয়েছে। গণতন্ত্রের বিজয় হয়েছে।’

এমএম-এসবি/এমএসআই/আরজি

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad