মক্তবে বিবস্ত্র করে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক আটক
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ | ৩০ আষাঢ় ১৪২৭

মক্তবে বিবস্ত্র করে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক আটক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ১২:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

মক্তবে বিবস্ত্র করে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক আটক

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার গুড়াতি পাড়া জামে মসজিদের মক্তবে ৮ বছর বয়সী এক স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে সৈয়দ আলী মুন্সি (৬৭) নামে এক শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

তিনি উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের গোবর্দ্ধন মাঝের চর গ্রামের মৃত নছিমুদ্দিনের ছেলে। এছাড়া তিনি স্থানীয় গুড়াতি পাড়া জামে মসজিদের ইমাম ও মক্তবের আরবি শিক্ষক।

জানা গেছে, গুড়াতি পাড়া জামে মসজিদের মক্তবে প্রতিদিন সকালে শিশুদের আরবি শিক্ষা দেওয়া হয়। শনিবার (৯ নভেম্বর) সকালে সেখানে ওই পাড়ার ৮ বছর বয়সী এক শিশু শিক্ষার্থী পড়তে গেলে কেউ না থাকার সুযোগে শিক্ষক সৈয়দ আলী মুন্সি ছাত্রীর হাতে ১০ টাকা দিয়ে জোরপুর্বক বিবস্ত্র করে যৌন হয়রানি করে।

এ সময় মক্তবে পড়তে আসা অপর দুই শিক্ষার্থী বিষয়টি দেখে ফেললে বিষয়টি প্রকাশ না করতে তাদেরকেও হুমকি দেন সৈয়দ আলী। পরে দুই সহপাঠিসহ ওই ছাত্রী বাড়ি ফিরে তাদের পরিবারকে বিষয়টি খুলে বললে এলাকায় জানাজানি হয়।

পরে রোববার দুপুরে ওই ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে আদিতমারী থানায় অভিযুক্ত ওই  শিক্ষকের বিরুদ্ধে একটি যৌন হয়রানির মামলা দায়ের করেন।

রাতে  স্থানীয়রা অভিযুক্ত শিক্ষক সৈয়দ আলীকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেন।

আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সৈয়দ আলী মুন্সিকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রাতেই আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এআর/জেডএস

 

: আরও পড়ুন

আরও