প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নাটোর জেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬

প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নাটোর জেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন

নাটোর প্রতিনিধি ২:১১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০

প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নাটোর জেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন

নাটোর জেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাইলফলক স্পর্শ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আজ বুধবার জেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন।

গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হয় নাটোরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে। এ উপলক্ষ্যে ভিডিও কনফারেন্সের শেষে জেলা প্রশাসকের আয়োজনে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মাদ্রাসা মোড় হয়ে ফের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ফিরে যায়।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ. পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি সহ জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ এবং বিভিন্ন পেশাজীবী ব্যক্তিবর্গ।

জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ জানান, নাটোর জেলার দুইটি সমিতিভুক্ত জেলার সাতটি উপজেলার ৫২টি ইউনিয়ন এবং আটটি পৌরসভা এলাকায় বিদ্যুতায়িত লাইনের পরিমাণ সাত হাজার চার কিলোমিটার। এক হাজার ১২১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এসব লাইনে গ্রাহকের সংখ্যা চার লাখ ৯৪ হাজার ৮৬৩ জন। শতভাগ বিদ্যুতায়নের ফলে এসব এলাকার জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন হয়েছে এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রমে এসেছে গতিশীলতা। জেলায় আট হাজার ৪১৪টি সেচ পাম্প এবং দুই হাজার ৮৪৯টি শিল্প সংযোগের ফলে অন্তত ৬০ হাজার ৩১৫ জন মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। এর ফলে খাদ্যে উদ্বৃত্ত জেলায় রুপান্তরিত হওয়াসহ শিল্পায়নের পথ সুগম হয়েছে।

নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ ও নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহণ করে গ্রামীণ জনপদের অন্ধকার  গ্রামগুলো জেগে উঠছে, সুদৃঢ় হচ্ছে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলা।

নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, নাটোর জেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনতে পেরে আমরা গর্বিত। বিদ্যুতায়নের ফলে শহর ও গ্রামের ব্যবধান ঘুচবে এবং গ্রামগুলো হয়ে উঠবে অর্থনৈতিক উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দু। বর্তমান সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি-‘আমার গ্রাম-আমার শহর’ বাস্তবায়নে নাটোর হবে অগ্রণী।

বিএল/এএসটি

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও