স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মামাকে হত্যা

ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মামাকে হত্যা

রাজশাহী ব্যুরো ২:৩৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২০

স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মামাকে হত্যা

রাজশাহীর বাঘায় উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় স্কুলছাত্রী তাজনিন তাবাসুম বৈশাখীর (১৫) মামা নাজমুল হোসেনকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে বখাটেরা। এ ঘটনায় বখাটে সুমনকে প্রধান আসামি করে ২৩ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত পাঁচজন-সহ ২৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন নিহতের বাবা অজিজুর রহমান।

মঙ্গলবার রাতে মামলাটি হয়। বুধবার সকালে বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এ ঘটনায় মূল আসামি পলাতক থাকলেও ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে। এদের মধ্যে পাঁচজন এজাহারভুক্ত।

মামলার বরাত দিয়ে তিনি বলেন, উপজেলার সুলতান গ্রামে ১৫ থেকে ২০ জন যুবক বিভিন্ন সময় স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থীদের উত্যক্ত করে। এলাকাবাসী তাদের বারবার নিষেধ করলেও তা অগ্রাহ্য করে। একই গ্রামের শাহাজান আলীর মেয়ে ও খানপুর জেপি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে মোহাম্মদ ভোলা প্রামানিকের ছেলে সুমন আলী রাস্তাঘাটে উত্যক্ত করত। বিষয়টি তার পরিবারকে জানানোর কারণে মেয়ের পরিবারের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে সুমন। মঙ্গলবার ওই ছাত্রী নানার বাড়ি যাওয়ার পথে তার পথরোধ করে অকথ্য ভাষায় গালাগালি দেয় সুমন। বিষয়টি সুমনের বাবাকে জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ধ্যায় ১০ থেকে ১৫ জন সাথে নিয়ে গিয়ে ওই ছাত্রীর বাবার বাড়ি ঘেরাও করে তাদের মারপিট শুরু করে। এ সময় ছাত্রীর মামা নাজমুল এগিয়ে আসলে তাকে ধারালো হাসুয়া, চাইনিজ কুড়াল, চাকু দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনার পর থেকে সুমন পলাতক রয়েছে।

বিএইচ/এএসটি

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও