স্কুল-পরীক্ষা ‘বন্ধ’ রেখে নলডাঙ্গা আ’লীগের সম্মেলনে শিক্ষকরা!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০ | ১৪ মাঘ ১৪২৬

স্কুল-পরীক্ষা ‘বন্ধ’ রেখে নলডাঙ্গা আ’লীগের সম্মেলনে শিক্ষকরা!

নাটোর প্রতিনিধি ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

স্কুল-পরীক্ষা ‘বন্ধ’ রেখে নলডাঙ্গা আ’লীগের সম্মেলনে শিক্ষকরা!

সারা দেশে এখন মাধ্যমিক স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা চলছে। আজ রোববার ৬ষ্ঠ, ৭ম এবং নবম শ্রেণির পরীক্ষা হয়েছে।

এদিন নলডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনও অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার তিনটি মাধ্যমিক স্কুল বন্ধ রেখে শিক্ষকরাও ওই সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

সে কারণে ওই তিনটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এদিনের পরীক্ষাও স্থগিত রাখা হয় বলে অভিযোগ ওঠেছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তিনটি হলো— নলডাঙ্গায় শ্রীশ চন্দ্র বিদ্যা নিকেতন, ডাক্তার নাসির উদ্দিন তালুকদার মহাবিদ্যালয় ও সরকুটিয়া উচ্চ বিদ্যালয়।

এ ঘটনায় ওই তিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানকে শোকজ করেছেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাইদুর রহমান। তাদেরকে আগামী তিন দিনের মধ্যে শোকজের জবাব দিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জানা যায়, প্রায় ৭ বছর পর আজ নলডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

দলের যারা নেতৃত্বে আসতে চান তাদের নিকটজন ওইসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচালনা কমিটির সভাপতি। ফলে তাদের নির্দেশে স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা স্কুল বন্ধ রেখে সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছেন শিক্ষকরা।

স্থানীয়রা জানান, বাসুদেবপুর শ্রীশ চন্দ্র বিদ্যানিকেতনের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি তৌহিদুর রহমান লিটন এবার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী।

এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ইয়াসিন আলী জানান, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির নির্দেশে তারা সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছেন। এজন্য শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ডাক্তার নাসির উদ্দিন তালুকদার মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মোহম্মদ আলী বলেন, সভাপতির নির্দেশের কারণে তিনিসহ কয়েকজন শিক্ষক সম্মেলন অনুষ্ঠানে গিয়েছেন। তবে যথানিয়মে ক্লাস হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা এবং পরীক্ষা স্থগিত রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলার স্বরকুতিয়া উচ্চ বিদ্যালয়টিও বন্ধ রাখা হয়। এই স্কুল কমিটির সভাপতি হচ্ছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান মিঠু।

তিনি দলের সভাপতি পদের প্রার্থী রইস উদ্দিন রুবেলের নিকট আত্মীয়। রুবেলের পক্ষে অবস্থান নিতে স্কুলের শিক্ষকদের সম্মেলনে উপস্থিত থাকার জন্য তিনি নির্দেশ দেন।

তবে আশরাফুজ্জামান মিঠু এই অভিযোগকে মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত দাবি করে বলেন, স্কুলে যথাসময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

সভপতি প্রার্থী রইস উদ্দিন রুবেল এসব অভিযোগকে মিথ্যা দাবি করে বলেন, যারা কাউন্সিলর তারাই সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছেন। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে কেউ সম্মেলনে উপস্থিত হয়নি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল রাব্বি বলেন, তার জানা মতে উপজেলার কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়নি। শিক্ষার্থীদের যেন সমস্যা না হয় সেকারণে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠে সম্মেলনের অনুমতি দেয়া হয়নি।

তিনি বলেন, উপজেলা অফিসের সামনের খোলা মাঠে সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। যদি কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে, তা খতিয়ে দেখা হবে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাইদুর রহমান বলেন, সাংবাদিকদের কাছ থেকে এমন তথ্য পাওয়ায় তাৎক্ষণিক বিষয়টি খোঁজ নেওয়া হয়। প্রাথমিক ভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় দুই প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে শোকজ করা হয়েছে। সেই সাথে আগামী তিন দিনের মধ্যে তাদের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এসবি

 

রাজশাহী: আরও পড়ুন

আরও