ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

জয়পুরহাট প্রতিনিধি ৩:১১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৯

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার দেওড়া আশ্রয়ন কেন্দ্রে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও হত্যার দায়ে ৭ আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জয়পুরহাট জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ড. এবিএম মাহমুদুল হক এ রায় দেন।

একই সাথে তাদেরকে আর্থিক জরিমানাও করা হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন— জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার মারমা গ্রামের সোহেল তালুকদার, দেওড়া সোনারপাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন, দেওড়া গুচ্ছগ্রামের রাহিন, দেওড়া সাখিদার পাড়ার ফেরদৌস আলী, দেওড়া সোনারপাড়ার মজিবর রহমান, জগতি গ্রামের রুহুল আমীন ও দেওড়া গুচ্ছগ্রামের আজিজার রহমান।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৬ সালের ৮ অক্টোবর রাতে দেওড়া আশ্রয়ন কেন্দ্রের বাসিন্দা উজ্জল মহন্তের স্ত্রী আরতী রাণীকে পরিকল্পিত ভাবে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে দুর্বৃত্তরা। পরে মুমূর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় ১০ অক্টোবর আরতী রাণীর স্বামী উজ্জল মহন্ত বাদী হয়ে দণ্ডপ্রাপ্ত ৭ জনকে আসামি করে আক্কেলপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

মামলায় দীর্ঘ শুনানির পর জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সকল আসামির মৃত্যুদণ্ডের আদেশ প্রদান করেন।

একই সাথে আসামি সোহেল ও ফেরদৌসের ৫ লাখ টাকা ও বাকি পাঁচ আসামির এক লাখ টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন।

সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন জয়পুরহাট জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধুরী।

এসবি

 

: আরও পড়ুন

আরও