লবণ পানির যত অজানা ব্যবহার

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ | ৯ মাঘ ১৪২৪

লবণ পানির যত অজানা ব্যবহার

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২০, ২০১৭

print
লবণ পানির যত অজানা ব্যবহার

লবণ পানির আর কি ব্যবহার আছে। তেমন কিছুই নেই। শুধু গলা ব্যাথায় গাড়গল করা ছাড়া লবণ পানি আর কি কাজে লাগে? আর বেশি কিছু হলে হয়তো হজমের সমস্যা হলে একটু লবণ পানি খেলে একটু স্বস্তি পাওয়া যায়। এছাড়া আর কি করা যায়? তবে মজার কথা হচ্ছে আমরা অনেকেই জানি না যে লবণ পানির আরো অনেক অজানা ব্যবহার আছে যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে খুব  সহজে। যা আমরা অনেকেই জানি না। আসুন তাহলে জেনে নেই কি কি কাজে ব্যবহার

ফুলদানি পরিষ্কার করতে

অনেকদিন পানি রেখে দিলে ফুলদানিতে পানির দাগ পড়ে যায়। লবণ পানি দিয়ে এই দাগ দূর করা সম্ভব। লবণ পানি ফুলদানিতে দিয়ে কিছুক্ষণ ঝাঁকিয়ে নিন। এরপর সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন দাগ দূর হয়ে গেছে। 

মশার কামড়ের চুলকানি দূর করতে

মশার কামড়ে অনেক যন্ত্রণা হয়। আর কারো যদি সেন্সেটিভ স্কিন হয় তাহলে তো কথাই নাই। লবণ পানি দিয়ে এই স্থানগুলোতে ম্যাসাজ করুন। চুলকানি এবং ফোলা অনেকখানি কমে যাবে। 

এলোমিনিয়াম পাত্রের দাগ দূর করতে

রান্না করার সময় এলোমিনিয়াম পাত্রে দাগ পড়ে যায়। এই দাগ দূর করতে প্যানে অর্ধেকটা ঠাণ্ডা পানি এবং ১/৪ কাপ লবণ মিশিয়ে রেখে দিন। পরের দিন সকালে এটি চুলায় ১০ মিনিটের জন্য জ্বাল দিন। তারপর পানি ফেলে স্ক্রাবার দিয়ে ঘষে দাগ তুলে ফেলুন। 

কাপড় থেকে ঘামের দাগ দূর করতে

এই সমস্যা সমাধানে ১/৪ লিটার গরম পানিতে ৪ টেবিল চামচ লবণ গুলিয়ে তা দাগের উপর লাগিয়ে নিন স্পঞ্জ করে। এভাবে কয়েকবার করুন এবং শুকিয়ে গেলে কাপড়ে দাগ দেখতে পাবেন না। 

ফ্রিজের দুর্গন্ধ দূর করতে

ফ্রিজের দুর্গন্ধ খুব সহজেই দূর করে দিতে পারবেন লবণ কুসুম গরম পানি দিয়ে ফ্রিজ ধুয়ে। এতে ফ্রিজের দুর্গন্ধ অনেকাংশেই দূর হয়ে যাবে এবং ফ্রিজে একধরণের তরতাজা ভাব চলে আসবে, খাবারেও গন্ধ হবে না। 

কেটে রাখা আপেল অথবা আলু তাজা রাখতে

আলু ও আপেল কেটে রাখলে বাদামী হয়ে যায় কিছুক্ষণের মধ্যেই। এক কাজ করুন, লবণ পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। দেখবেন অনেকটা সময় বাদামী দাগ পড়ছে না। 

চুলার পরিষ্কার করতে

রান্নার সময় চুলার আশেপাশে এবং চুলার উপরে তেল মশলা পড়ে তেলতেল ভাব হতেই পারে। কুসুম গরম পানিতে লবণ গুলিয়ে একটি কাপড় ভিজিয়ে ভালো করে মুছে নিন। সমস্যার সমাধান। 

দুধ নষ্ট হওয়া থেকে বাঁচাতে

অনেক সময় আমরা ফ্রিজে দুধ জমিয়ে রাখি। বেশি দিন দুধ রেখে দিলে তা পরবর্তীতে জ্বাল দেয়ার সময় ফেটে যায়। আমরা ভাবি যে দুধ নষ্ট হয়ে গিয়েছে। এই সমস্যা সমাধানে ১ চিমটি লবণ সামান্য পানিতে মিশিয়ে দুধে দিয়ে দিন। বেশ লম্বা সময় দুধ আর নষ্ট হবে না। 

সহজে ডিমের খোসা ছাড়াতে

থেকে মুক্তি পেতে চাইলে লবণ পানিতে ডিম সেদ্ধ করুন, খুব সহজেই সেদ্ধ ডিমের খোসা ছাড়িয়ে নিতে পারবেন। 

ইসি/

print
 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad