ঘর সাজাতে বাসন-কোসনের ব্যবহার
Back to Top

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬

ঘর সাজাতে বাসন-কোসনের ব্যবহার

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:১১ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৯, ২০২০

ঘর সাজাতে বাসন-কোসনের ব্যবহার

ছোট বাড়িতে বা নিজস্ব ফ্লাটের স্বপ্ন সবার থাকে। সেই ভালোবাসার নীড়কে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলার পেছনে থাকে বহু পরিকল্পনাও। ঘরের কোথায় কী রং হবে, পর্দা-আসবাব কোথায় কেমন বসবে, দেওয়াল জুড়ে কী কী ফ্রেম দিলে ভালো হবে—সবকিছুকে নিয়েই কল্পনার জাল বোনে মন।

একটা সময় অবধিও থালা-বাসন জড়িয়েছিলো রান্না আর খাবারের সঙ্গে। কিন্তু সেসব দিন এখন অতীত। দিন যতো এগিয়েছে দেখার ভঙ্গিও বদলেছে। ক্রোকারি এখন আর কাপবোর্ডে বন্দি নেই। বরং তারা স্বমহিমায় দেওয়ালে, টেবিলে জায়গা করে নিয়ে অন্দরসজ্জার রকম বদলে দিয়েছে।

ভালো মানের সিরামিক কোনো অংশেই দামি কাঠের আসবাবের চেয়ে পিছিয়ে নেই। তাই বেডরুম থেকে শুরু করে ডাইনিং, বাদ যায়নি বাথরুমও।

ক্রোকারি সজ্জার তালিকায় অন্যতম নাম রেকাবি। দেওয়ালে হরেক রংয়ের প্লেট সাজিয়ে রাখার চল কিন্তু আজকের নয়। তবে ঘর সাজাতে প্লেট ছাড়াও কাচের জার, সেরামিকের বয়াম, চিনেমাটির পেয়ালা, ওয়াইন গ্লাস, কফি মাগ, মেসন জারের ব্যবহার কিছু কম নয়।

প্রথমে নিজের বাড়িতে থাকা হরেক ক্রকারির মধ্যে থেকে কোনগুলো সেরা, তা বেছে নিন। এই মুহূর্তে যে ধরনের সাজ আপনার ঘরের রয়েছে, তার উপরে ভিত্তি করেই প্রাথমিকভাবে ক্রোকারি বাছতে হবে। দেওয়ালের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে, নিউট্রাল টোনের ক্রকারি বেছে নিন। অন্যের নজর কাড়তে দেওয়াল যে রঙের ঠিক তার উল্টো ও উজ্জ্বল কোনো রঙের ক্রোকারি নির্বাচন করলে বেশি ভালো হয়।

এছাড়াও দেওয়ালে ক্রোকারি লাগানোর কথা। কাঠের ওয়াল হ্যাঙ্গিং বা ঝুলন্ত বাক্স লাগিয়ে তাতে নানা ধরনের ফুলদানি, কাচের বাহারি বাটি কিংবা সেরামিকের বয়াম রাখতে পারেন। এতে আপনার ঘরের সৌন্দর্য আরো বাড়বে।

নিজের কিচেন ক্যাবিনেটকেও যদি অন্দরের মতো করে সাজিয়ে তুলতে চান। তবে ক্রোকারি সাজান রঙের হালকা থেকে গাঢ় কিংবা উল্টো ভাবে। এতে বিষয়টিতে সম্পূর্ণতা আসে।

মন মতো দেওয়াল সাজাতে ক্রোকারি আর সিলিং কাজে লাগান। ফল্‌স সিলিং থেকে ওয়াইনের গ্লাস, মজাদার কফির মাগ, সব কিছুই ঝোলাতে পারেন।

সবই তো হলো, ক্রোকারি কিনে এনে সাজিয়ে রাখার কথা। এর পাশাপাশিই যদি  ক্রোকারির সাজে থাকে নিজের হাতের ছোঁয়া তবে কেমন হয়? বাড়ির সদস্যের সংখ্যা গুনে কফি মগ নিন। প্রতিটি মগের উপরে সদস্যদের ছবি আঁকিয়ে কিংবা প্রিন্ট করে নিতে পারেন। এছাড়াও কফি মগ কিংবা রেকাবির উপরে পছন্দের কবিতা, গল্পের লাইন অথবা উক্তি লিখতে পারেন। অতিথি হোক বা প্রিয়জন— আটকা পড়বেনই আপনার শৌখিন রুচিতে।

এসকে

 

জীবনযাত্রা: আরও পড়ুন

আরও