জিততে চিটাগংয়ের চাই ১৪৯ রান

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০১৭ | ৮ আষাঢ় ১৪২৪

জিততে চিটাগংয়ের চাই ১৪৯ রান

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৩:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৬

print
জিততে চিটাগংয়ের চাই ১৪৯ রান

মেহেদী হাসান মারুফ ও কুমার সাঙ্গাকারার ভালো শুরুর পরও চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে বড় স্কোর গড়তে পারলো না ঢাকা ডায়নামাইটস। মূলত টাইমাল মিলস ও মোহাম্মদ নবীর বোলিং তোপে ১৪৯ রানে থামতে হয়েছে সাকিব আল হাসানের দলটির।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় পর্ব চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার। দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। উদ্বোধনী জুটিতে ৪.৫ ওভারে মেহেদী মারুফ ও কুমার সাঙ্গাকারা ৪১ রানের জুটি গড়ে দলকে ভালো সূচনা এনে দেন। এরপরই দুর্দান্ত খেলতে থাকা মারুফ মোহাম্মদ নবীর বলে এলব্লিডাব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন। আউট হওয়ার আগে ২২ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে এই ডানহাতি করেন ৩৩ রান।

মারুফের ফিরে যাওয়ার পর সাঙ্গাকারার সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ব্যাটিংয়ে নামেন নাসির হোসেন। সাঙ্গাকারার সঙ্গে ২৬ বলে ৩১ রানের জুটি গড়ে তোলেন তিনি। কিন্তু দশম ওভারে টাইমিল মিলসের প্রথম ও চতুর্থ বলে নাসির (২০) ও সাঙ্গাকারা (১৭) ফিরে যান সাজঘরে। দলীয় ৭৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ডায়নামাইটস। এসময় আশার প্রতীক হয়ে ছিলেন সাকিব আল হাসান, কিন্তু তিনিও হতাশ করেন দলটিকে। মাত্র ১৩ রানে মোহাম্মদ নবীর বলে বোল্ড হয়ে পথ ধরেন প্যাভিলিয়নের। তবে একপ্রান্তে আগলে ছিলেন তরুণ মোসাদ্দেক হোসেন। প্রতিপক্ষ বোলারদের বিপক্ষে সতীর্থদের আসা যাওয়ার মধ্যে যা একটু লড়লেন এই ডানহাতিই। ২৬ বলে ২ চার ও ২ ছয়ে ৩৫ রান করে দলকে ১৩৮ রানে পৌঁছে দেন তিনি। এরপর ১৯তম ওভারে মিলসের তৃতীয় বলে মোসাদ্দেক নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ধরা পড়েন তিনি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৪৮ রানে থামে ঢাকা ডায়নামাইটস।

চিটাগংয়ের হয়ে মোহাম্মদ নবী ও মিলস নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া ইমরান খান জুনিয়র নেন ১টি উইকেট।

সিআর/এটি

print
 

আলোচিত সংবাদ