মাদকমুক্ত ও শিক্ষিত সমাজ গড়তে চান হারুন (ভিডিও)

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ | ১০ মাঘ ১৪২৪

মাদকমুক্ত ও শিক্ষিত সমাজ গড়তে চান হারুন (ভিডিও)

এম এম কবীর, রংপুর থেকে ৪:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৭

print

মাদকমুক্ত ও শিক্ষিত সমাজ গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন ২৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হারুন অর রশীদ। তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হলে তার ওয়ার্ড মাদকমুক্ত করা, আর শিক্ষিত সমাজ গড়ার ওপর জোর দেবেন বলে জানিয়েছেন হারুন অর রশীদ। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, শিক্ষিত ও বেকারমুক্ত সমাজ গড়ার জন্য দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। গরীব অসহায় ও মেধাবী দরিদ্র্য ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

সমাজসেবামূলক এই কাজের ধারা বজায় রাখার জন্য ২৭নং ওয়ার্ডের প্রতিটি ঘরে ঘরেই পৌঁছে দিচ্ছেন ট্রাক্টর প্রতীক নিয়ে তার স্বপ্ন ও আদর্শের ওয়ার্ড গড়ার প্রতিশ্রুতি।

হারুন অর রশীদ উর্দুভাষী বাঙালি। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর যে সব পাকিস্তানিরা এদেশে আটকে গিয়েছিলেন- হারুন তাদেরই একজন সন্তান। তার মতো ওই ওয়ার্ডে আরো কয়েক হাজার উর্দুবাসী বাঙালি রয়েছেন।

হারুন বলেন, অনেকেই অনেক কথা বলে আমার পরিচয় নিয়ে। মাঝে মধ্যে কিছুটা ভয়ের কাজ করে আমার মধ্যে। তারপরও দেশ ও সমাজের উন্নয়নে কাজ করে যেতে চাই। এজন্য কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছি।

তিনি বলেন, কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে আমার প্রথম চালেঞ্জ ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত করা। কারণ আমার ওয়ার্ডের তরুণ সমাজ মাদকে আসক্ত।

মেয়র প্রার্থী হারুন বলেন, মাদক তরুণদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করে দিচ্ছে। আর এই মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে হলে শিক্ষার বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, শিক্ষাই যেহেতু একটি জাতির মেরুদণ্ড, তাই শিক্ষা বিস্তার প্রসার ঘটাতে পারলে তরুণদের মাঝে সচেতনতাবোধ জন্ম নেবে তখন মাদকমুক্ত ওয়ার্ড বা সমাজ গড়া সহজ হবে।

এছাড়া বেকার সমস্যা দূর করতে কুটির শিল্প ও হ্যান্ডি ক্রাফটটের মতো কাজ পরিচালনা করতে চান কাউন্সিলর প্রার্থী হারুন।

এলাকার উন্নয়নের জন্য যোগাযোগ ব্যবস্থার বিকল্প নেই এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা যদি ভাল না থাকে তাহলে কোনো কিছুই করা সম্ভব নয়।

২৭নং ওয়ার্ড রংপুর সিটি করপোরেশন একটি অবহেলিত ওয়ার্ড। এখানকার মানুষ নগর উন্নয়নের সুবিধা বঞ্চিত। সিটি করপোরেশনকে সকল ধরনের ট্যাক্স প্রদান করলেও নাগরিকরা সুবিধা বঞ্চিত। এছাড়া পয়ঃনিষ্কাশন ও সুপীয় পানির সমস্যা রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দুর্গন্ধ ও ময়লাযুক্ত পানি এলাকার আরেকটি বড় সমস্যা। এ থেকে আমি আমার ওয়ার্ডবাসীকে উদ্ধার করতে চাই।

নির্বাচনী প্রচারণায় কোনো বাধা পাচ্ছেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে কাউন্সিলর প্রার্থী হারুন বলেন, আমি সংখ্যালঘুদের মতো সিটি করপোরেশনে আছি। এলাকাবাসী সবাই আমাকে পছন্দ করেন বিধায় সবার কাছে ভোট ও দোয়া চাইতে পাচ্ছি।

ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা ভয়-ভীতির ঊর্ধ্বে নির্বিঘ্নে ভোট প্রয়োগ করবেন।

তিনি বলেন, এই দেশেই তার জন্ম, এই দেশেই তার মৃত্যু হবে। তার বাবা-মায়ের মৃত্যুও এ দেশে হয়েছে। নির্বাচনে জয়-পরাজয় যাই হোক না কেন সমাজ ও এলাকার উন্নয়নে সবার সাথে থাকতে চাই।

২৭নং ওয়ার্ডে ১২ হাজার ৯৯৬ জন ভোটার। এর মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৪৭৪ আর নারী ৬হাজার ৫২২। এই ওয়ার্ডে ১৩ কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভোটকেন্দ্র ৬টি।

আগামী ২১ ডিসেম্বর রসিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এমকে/এসবি

print
 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad