পুরুষ ও নারীদের শার্টের বোতাম দুই দিকে কেনো হয়?

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

পুরুষ ও নারীদের শার্টের বোতাম দুই দিকে কেনো হয়?

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৩১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৭

print
পুরুষ ও নারীদের শার্টের বোতাম দুই দিকে কেনো হয়?

শার্ট তো শার্টই এর আবার বোতামের দিক কি? এমনটা অনেকেই মনে করেন। তবে অনেকেই এটা জানেন না অনেক বিশেষ ও মজার কারণে নারী ও পুরুষের শার্টের বোতাম দুইমুখী হয়ে থাকে। শার্টের বোতামের এই পৃথক পৃথক দিকের ক্ষেত্র নিয়ে রয়েছে বহু তথ্য, কোনোটি আবার বেশ মজারও৷ নিচে রইল তেমনই কিছু তথ্য। আসুন সেই মজার তথ্যগুলো জেনে নেই।

.

১. প্রাচীন কালে যখন পোশাকের প্রচলন শুরু হয় তখন থেকেই পুরুষরা নিজেরাই নিজেদের জামা গায়ে দিতো। সেই থেকেই ডান দিকে বোতামের চল শুরু। আর মহিলাদের তখন অন্য কেউ জামা পরিয়ে দিত। তাই যারা জামা পরিয়ে দিতো তাদের সুবিধার্থেই বাম দিকে বোতাম রাখার প্রচলন চালু হয়।

২. যদি ইতিহাসের দিকে একটু ফিরে তাকানো যায় তাহলে অনেকেই শুনে থাকবেন যে নেপোলিয়নে নাম জড়িয়ে রয়েছে এই বোতামের দিক পরিবর্তনের সঙ্গে৷ বলা হয়ে থাকে, নেপোলিয়ন বোনাপার্টের প্রায় সব ছবিতেই নাকি তার ডান হাত কোটের ভিতরে ঢোকানো থাকত৷ মনে করা হয়, কোটের বোতাম বাম দিক থেকে ডানদিকে খুলতে হলে এই ধরনের একটি পোজ চলে আসে৷

আবার সেসময় মেয়েদের ডানহাতও নাকি সেভাবেই থাকত৷ আর এই দুই বিষয় নিয়ে সেসময় কৌতুকও কম হয়নি৷ এই কৌতুকের কথা নেপোলিয়নের কানে যেতেই তিনি নাকি মেয়েদের পোশাকে বোতাম বাম দিকে করে দেওয়ার নির্দেশ দেন৷ আর তখন থেকেই নাকি এই রীতি চলে আসছে৷

৩. অন্য একটি মত হল, মহিলারা তাদের সন্তানকে যেহেতু বামদিকে ধরতে হয়, তাই ডান হাত খালি থাকে। বাচ্চার দুগ্ধপানের সময় বোতাম ডানদিকে থাকলে খুলতে অসুবিধা হত৷ এই অসুবিধা দূর করতেই নাকি বোতামের দিক পরিবর্তন করা হয়৷

৪. অনেকের মতে মেয়েরা পুরুষের সামন সামন বোঝানোর জন্যই একই ধরনের শার্ট পরার প্রথা চালু হয়৷ কিন্তু তার মধ্যেও বৈচিত্র আনার জন্যই বোতামের দিক পৃথক রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ পাশাপাশি এই পৃথকীকরণে হত ছেলে-মেয়ের পোশাক বুঝে নেওয়ার ক্ষেত্রে সুবিধা হত দর্জিদেরও৷

৫. প্রাচীনকালে পুরুষরা ঘোড়া নিয়ে ছুটলে রাস্তার বাঁদিক দিয়ে যেতেন, যাতে ডান দিকে তলোয়ার চালাতে সুবিধা হয় তাই সেটি রাখা থাকত বামদিকে-কোমরে। আর তা বের করার সময় যাতে কোটের বোতামে আটকে না যায়, তার জন্যই নাকি বোতাম বসানো হতো ডানদিকে।

৬. অন্য একটি মত হল, মহিলারা তাদের সন্তানকে যেহেতু বামদিকে ধরতে হয়, তাই ডান হাত খালি থাকে। বাচ্চার দুগ্ধপানের সময় বোতাম ডানদিকে থাকলে খুলতে অসুবিধা হত৷ এই অসুবিধা দূর করতেই নাকি বোতামের দিক পরিবর্তন করা হয়৷ 

৭. তবে সব চাইতে সহজ কারণ হতে পারে, পোশাকের ফ্যাশন যতই এগিয়ে যাক সেটা নারী এবং পুরুষের জন্য অবশ্যই আলাদা বৈশিষ্ট বহন করে। আর শার্ট যেহেতু একই জাতের পোশাক আর পুরুষ নারী উভয় পরে থাকে তাই এটাকে আলাদা করার জন্যই কিছুটা ভিন্নতা রাখা হয়েছে। যেনো দেখেই বুঝা যায় কোনটা পুরুষের জন্য আর কোনটা নারীদের জন্য। 

সূত্র: কেএন 

ইসি/

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad