ভালোবেসে প্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজকুমারী

ঢাকা, শনিবার, ২২ জুলাই ২০১৭ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৪

ভালোবেসে প্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজকুমারী

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১৮ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০১৭

print
ভালোবেসে প্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজকুমারী

প্রেমের কারণে স্বেচ্ছায় রাজপ্রাসাদ ছাড়ছেন জাপানের রাজপরিবারের এক সদস্য। আকিহিতো সম্রাজের অন্যতম রাজকুমারী প্রিন্সেস মাকো সাধারণ পরিবারের এক ছেলেকে বিয়ে করার সিদ্ধান্তের কারণে এই পথ বেছে নিতে বাধ্য হচ্ছেন।

আইন বিষয়ে পড়ার সময় ২৫ বছর বয়সী মাকোর সঙ্গে কাই কোমুরো’র পরিচয় হয়। সাধারণ ঘরের একই বয়সী কোমুরো’কে ভালো লেগে যায় মাকো’র। ফলে বন্ধুত্ব প্রেমের দিকে গড়ায়। বর্তমানে দু’জনে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলে সামনে আসে রাজ পরিবারের প্রথার বিষয়টি। কেননা, রাজপরিবারের কোনো মেয়ের সাধারণ মানুষকে বিয়ে করার অনুমতি নেই।

তারপরও কেউ বিয়ে করলে তা রাজ প্রথাবিরোধী হিসেবেই গণ্য হয়। আর সেটি হলে প্রাসাদ ত্যাগ করাই রাজপরিবারের নিয়ম।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, ২০১২ সালে একটি রেস্টুরেন্টে প্রথম দু’জনের দেখা হয়। এসময় তারা টোকিও’র একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছিলেন। দীর্ঘ ৫ বছরের প্রেমপর্ব শেষে কাই আর মাকো সিদ্ধান্ত নেন বিয়ে করার। ফলে মাকোকে থাকতে হবে প্রাসাদের সকল সুযোগ সুবিধার বাইরে সাধারণ ঘরে। এবং জাপানের একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে।

সম্রাট আকিহিতোর রাজবংশকে এখনও সম্ভ্রমের চোখেই দেখে জাপানের সাধারণ মানুষ। সম্রাট আকিহিতোর প্রিয় নাতনির এমন সিদ্ধান্তকে ঘিরে এখন দেশটিতে আলোচনার শেষ নেই। বার্তা সংস্থা এপি (Associated Press) জানিয়েছে, যে কোনো সময় রাজকুমারীর বিয়ের দিনক্ষণ জানানো হবে। তাছাড়া রাজপরিবারের পক্ষ থেকেও মাকো’র প্রাসাদ ত্যাগের ঘোষণা আসতে যাচ্ছে।

সম্রাট আকিহিতোর ৩ নাতনি। তারা হলেন মাকো, কাকো এবং আইকো। আর নাতি রয়েছেন একজন, নাম হিসাহিতো। তবে সবার মধ্যে মাকোই বয়সে বড়। 

রাজকুমারী মাকো লিসেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়ে কিছুদিন যাবৎ একটি জাদুঘরে গবেষণার কাজ করছেন। আর প্রেমিক কাই কোমুরো বর্তমানে আইনমন্ত্রণালয়ে কাজ করছেন। যদিও সেটা খুব উঁচু পদের কাজ নয়।

এদিকে সাংবাদিকদের প্রশ্নবানে জর্জরিত কাই কোনো উত্তর দিতে নারাজ। সাংবাদিকদের এড়িয়েও চলছেন তিনি। তবে এটুকুই বলেছেন, ‘এখন মন্তব্য করার সময় নয়! সময় হলে সবই জানতে পারবেন।’

রাজপরিবারটিতে অবশ্য আগেও এমন ঘটনা ঘটেছে। সম্রাট আকিহিতো’র একমাত্র মেয়ে অর্থাৎ মাকো’র ফুপু রাজকুমারী সায়াকো ২০০৫ সালে সাধারণ মানুষকে বিয়ে করে প্রাসাদ ত্যাগ করেছিলেন। তারই পথ এখন অনুসরণ করতে চলেছেন রাজকুমারী মাকো।  

কেবিএ

print
 

আলোচিত সংবাদ