মঙ্গল গ্রহে ওটা কিসের মাথা? (ভিডিও)

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

মঙ্গল গ্রহে ওটা কিসের মাথা? (ভিডিও)

কে বি আনিস ৫:১৭ অপরাহ্ণ, মে ১৪, ২০১৮

print
মঙ্গল গ্রহে ওটা কিসের মাথা? (ভিডিও)

ব্রিটেনের মহাকাশ বিষয়ক সাংবাদিক জো হোয়াইট সম্প্রতি একটি ছবি ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারের পর থেকেই নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। মঙ্গল গ্রহ থেকে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা’র রোবটযান কিউরিসিটি রোভারের পাঠানো একটি ছবি হচ্ছে আলোচনার মূল বিষয়।

জো হোয়াইট ছবিটি প্রকাশের পর দাবি করেছেন, মঙ্গল গ্রহে এক সময় উন্নত জাতির অস্তিত্ব ছিল যার প্রমাণ আবারও মিলেছে। ভিডিও’তে কিউরিসিটি রোভারের পাঠানো একটি ছবি দেখিয়ে তিনি বলেন, সেই উন্নত সভ্যতার বেশ কিছু নিদর্শন এখনও মঙ্গলের মাটিতে পড়ে রয়েছে।

ছবির বিশেষ একটি অংশকে দেখিয়ে তিনি বলেন, মঙ্গলের বুকে শুধু যে পাথর পড়ে রয়েছে এমনটা মনে করা বোকামি। সেখানে এখনও নানা মূর্তি ও স্থাপত্যের ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে রয়েছে। এর মধ্যে বিশেষ একটি পাথরের স্তুপকে দেখিয়ে তার দাবি, সেখানে কোন মূর্তির মুখ দেখা যাচ্ছে।

অবশ্য সেটি কোনো মূর্তির মাথা? নাকি মৃত কোনো প্রাণীর ফসিল সে সম্পর্কে সন্দিহান জো। তবে সেটি যে নিছক পাথর নয়, সে ব্যাপারে নিশ্চিত বলেই ভিডিওতে তিনি দাবি করেছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ইউকে সোমবার এক প্রতিবেদনে জানায়, জো তার পরিচালিত ইউটিউব চ্যানেল আর্টএলিয়েন টিভি (ArtAlienTV)’তে ভিডিওটি প্রথম প্রকাশ করেন। অল্প সময়ের মধ্যেই তা ৮ হাজারের বেশি দেখা হয়ে যায়।

পর্যবেক্ষণের পর জো অবশ্য প্রাথমিকভাবে সেটিকে পাখির কঙ্কাল বলেই ধারণা করছেন। সে জন্যই ৪৫ বছরের ওই সাংবাদিক ভিডিও’টির ক্যাপশন দেন ‘A giant bird, a giant’s skull and other mysterious structures and objects on Mars’..

ছবিতে দেখা সেই বিশেষ ফসিল সম্পর্কে জো বলেন, ‘সেটি কোনো বিশাল পাখি, সরিসৃপ কিংবা প্রাণীর মুখের চোয়াল হতে পারে। ভালো করে লক্ষ্য করে দেখুন, চোখের দু’টি কোটরও দেখতে পাবেন।’ এমনকি চোয়ালে কয়টি দাঁত রয়েছে তাও জানিয়েছেন।

জো হোয়াইটের মতে, ‘সেই মূর্তির দাঁত স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে। খেয়াল করে দেখলে তাতে অন্তত ৭টি দাঁত চোখে পড়বে’।

তিনি মনে করেন, দীর্ঘদিন বৈরী পরিবেশে থাকার কারণে কালের আবর্তে কাদা-মাটি লেগে সেসব স্থাপনা এখন আর চেনা যায় না। কিন্তু গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করলে এসব স্থাপত্য চোখে অবশ্যই পড়বে। ভিডিও’টির মাঝে অবশ্য সেটিকে চোখের ধাঁধা হওয়ার সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছেন জো।

তবে যাই হোক, ভিডিওটি প্রকাশের পর অনেকেই জো হোয়াইটকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। বলেছেন, মঙ্গল পৃষ্ঠের এমন ফসিল আবিষ্কারের মাধ্যমে দারুণ কাজ করেছেন হোয়াইট। মঙ্গলে যে উন্নত সভ্যতা ছিল তার অকাট্য প্রমাণ দিয়েছেন রয়টার্সের সাবেক এই স্পেস জার্নালিস্ট।

কেবিএ

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad