ভূমিষ্ঠের পর সন্তানকে ফেলে গেলেন মা (ভিডিও)

ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪

ভূমিষ্ঠের পর সন্তানকে ফেলে গেলেন মা (ভিডিও)

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:২২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

print
ভূমিষ্ঠের পর সন্তানকে ফেলে গেলেন মা (ভিডিও)

সন্তানের জন্য মায়ের ভালবাসা পৃথিবীর সব প্রাণীর ক্ষেত্রেই দেখা যায়। মানুষও তার ব্যতিক্রম নয়! কিন্তু সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ আসলে সব কিছুতেই সেরা। মনুষ্যত্বের দিক থেকেও যেমন সেরা, তেমনই পশুত্বের দিক থেকেও। তা না হলে, ভূমিষ্ঠের পর সন্তানকে টয়লেটে ফেলে যাবেন কেন গর্ভধারিণী মা?

আশ্চর্য শোনালেও সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে এমনই ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানায়, আরিজোনা রাজ্যের টাক্সন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টয়লেটে সম্প্রতি সদ্যোজাত শিশুর সন্ধান পায় সেখানকার এক পরিচ্ছন্নতা কর্মী। এরপর কর্তৃপক্ষকে সেই কর্মী বিষয়টি জানালে তদন্ত চলে।

তদন্তের অংশ হিসেবে বিমানবন্দরে স্থাপিত ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার সাহায্য নেয়া হয়। সেখানে ধরা পড়ে আসল ঘটনা। ধারণ হওয়া ভিডিও’তে দেখা যায়, অন্ত:সত্ত্বা অবস্থায় এক নারী বিমানবন্দরে প্রবেশ করছে। এর কিছুক্ষণ পরই দেখা যায় ধীর পদক্ষেপে তিনি বের হয়ে আসছেন।  

তদন্তে থাকা উপস্থিত সবাই হতবাক হয়ে ভিডিওটিতে দেখেন, ওই নারী সদ্যোজাত সন্তানকে না নিয়েই চলে যাচ্ছেন। প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিডিও ফুটেজ দেখে জানা গেছে যে ঘটনার দিন রাত ৯ ‌টার দিকে ওই নারী বিমানবন্দরের একটি টয়লেটে শিশুটির জন্ম দেন।

কিন্তু শিশুটিকে না নিয়ে ওই নারী একটি চিঠি লিখে সেখানে রেখে যায়। যেখানে লেখা ছিল, ‘‌আমাকে দয়া করে সাহায্য করুন। আমার মায়ের কোনো ধারণাই ছিল না যে তিনি গর্ভবতী। আমার দায়িত্ব নিতে আমার মা অক্ষম এবং অযোগ্য। দয়া করে আমাকে কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিন যাতে তারা আমার জন্য ভালো একটি ঘর খুঁজে দিতে পারে।’

সন্তানের পক্ষ হয়ে বয়ানের পর ওই নারী লিখেছেন, ‘আমি তার জন্য সেরা মা হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমি তা নই! দয়া করে আমাকে ক্ষমা করবেন।’   

মা তার সন্তানকে ফেলে যাওয়ার পর বিমানবন্দরের টয়লেটে যখন সন্ধান মেলে তখনও শিশুটির নাড়ি কাটা হয়নি। অবশ্য শিশুটির যাতে কোনও ক্ষতি না হয় সে জন্য তাকে ওষুধ দিয়ে রেখেছিল মা। ভিডিও সুত্র ধরে কর্তৃপক্ষ পরে বিমানবন্দরের ডাস্টবিন থেকে রক্তমাখা কাপড় ও টাওয়েল উদ্ধার করে। 

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বর্তমানে শিশুটি সুস্থ আছে। প্রথমে তাকে বিমানবন্দরের কাছেই একটি হাসপাতালে নেয়া হলেও এখন তাকে আরিজোনার চাইল্ড প্রোটেকশন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ওই নারীর সন্ধানে তার ছবি ও হাতে লেখা চিঠি প্রকাশ করেছে।

ভিডিও...

কেবিএ

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad