ক্যান্ডিক্রাশেই বছরে গচ্চা ১০ হাজার কোটি ডলার!

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৪

ক্যান্ডিক্রাশেই বছরে গচ্চা ১০ হাজার কোটি ডলার!

মোহাম্মদ মামুনূর রশিদ ৫:০৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৮

print
ক্যান্ডিক্রাশেই বছরে গচ্চা ১০ হাজার কোটি ডলার!

যুক্তরাষ্ট্রের অফিস কর্মচারীদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় নতুন টুল কী? সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে ফেসবুক, স্ন্যাপচ্যাট আর ক্যান্ডিক্রাশ যুক্তরাষ্ট্রের কর্মচারীদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপ। কোনো কাজ না পেলে দিনভর তারা এই খেলে সময় কাটান বলে জানিয়েছে গবেষণাপত্রটি।

যুক্তরাষ্ট্রের সব চাকরিক্ষেত্রের কর্মচারীদের মাঝেমধ্যেই অলস সময় কাটাতে হয়। বেতনভোগী কর্মচারীরা ওয়ার্কিং আওয়ারে এসব গেম বা অ্যাপে সময় কাটানোর ফলে বছরে ১০০ বিলিয়ন অর্থাৎ ১০ হাজার কোটি ডলার নষ্ট হচ্ছে নিয়োগকর্তাদের।

জার্নাল অফ অ্যাপ্লাইড সাইকোলজির আগামী সংখ্যায় প্রকাশিতব্য গবেষণাপত্রটির তথ্য ও বিশ্লেষণ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক পোস্ট।

সাধারণত কর্মচারীদের ওপর অত্যধিক কাজের চাপ নিয়ে বিভিন্ন জরিপ প্রকাশ করা হয়। কিন্তু, অনেক ক্ষেত্রে এর উল্টোটাও সত্য।

 

গবেষণায় দেখা গেছে, কর্মচারীরা অলস হওয়ার কারণে কাজ না করে বসে থাকেন না। বরং, প্রতিষ্ঠানগুলোর বিভিন্ন পলিসির কারণে মাঝে মধ্যে অলস হয়ে হয়ে বসে থাকতে হয় তাদের।

অফিসে কাজ না থাকার অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে, আমেরিকার প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রয়োজনের অতিরিক্ত কর্মচারী নিয়োগ দেয়া হয়। নির্দিষ্ট কিছু সময়ে হঠাৎ কাজের চাপ বেড়ে গেলে তখন যেন কিছুতেই প্রতিষ্ঠানগুলোর কোনো সেবা প্রদানে দেরি না হয় তা নিশ্চিত করতে তারা এই কাজ করে। যত যাই হোক, গ্রাহক সেবা দিতে দেরি হলে প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেতা হারাবে।

আবার কিছু ক্ষেত্রে, ম্যানেজাররা কর্মচারীদের মধ্যে কাজ ভাগ করে অদক্ষতার পরিচয় দেন। অফিসের যন্ত্র বিকল হয়ে যাওয়ার ফলেও অনেক সময় কর্মচারীরা জরুরি কাজ অসম্পূর্ণ রেখে বসে থাকেন।

ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস ও হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল ২৯ ধরনের চাকরি ক্ষেত্রে ২,১০৩ কর্মচারীদের ওপর এই গবেষণার জন্য জরিপ চালায়। অ্যান্ড্রু ব্রডস্কি ও টেরেসা আমাবিল ওই জরিপ পরিচালনা করেন।

জরিপে তারা দেখতে পান, ৭৮.১ শতাংশ কর্মচারী মাঝেমধ্যে অলস হয়ে বসে থাকার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। আর বাকি ২১.৭ শতাংশ কর্মদিবসের একটি অংশ কাজ না করে বিরক্ত হয়ে বসে থাকতে হয় বলে জানান।

ব্রডস্কি বলেন, ‘নিষ্কর্মা হয়ে বসে থাকার অর্থনৈতিক প্রভাব সুদূরপ্রসারী।’

তিনি বলেন, ১০ হাজার কোটি ডলার নষ্ট হওয়ার যে হিসাব তারা করেছেন, সেটিতে কর্মচারীদের বেতন অনেক কম বিবেচনা করা হয়েছে।

আমেরিকার অফিস কর্মচারীরা গড়ে ঘণ্টায় ১৭.০৯ ডলার আয় করেন বলে ধরা হয়েছে গবেষণায়। কিন্তু, ২০১৪ সালের দেশটির সেন্সাস ব্যুরো অফিস জানিয়েছিল, সেখানে কর্মচারীদের গড় বেতন ২২.৭১ ডলার।

আবিগেইল থমাস নামের একজন মানবসম্পদ বিশেষজ্ঞ জানান, সিনিয়র ম্যানেজারদের হিসাব মতে যুক্তরাষ্ট্রের চাকুরীজীবীরা সপ্তাহে গড়ে ছয় ঘণ্টা কিচ্ছু না করে অফিসে বসে থাকেন। উচ্চপদস্থ কর্মচারীদের ক্ষেত্রে প্রতি সপ্তাহে অলস হয়ে অফিসে বসে থাকার গড় সময় সাড়ে ১০ ঘণ্টা।

এমআর/আইএম

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad