যে দ্বীপে যেতে পারে না পুরুষেরা!

ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

যে দ্বীপে যেতে পারে না পুরুষেরা!

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৪৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৮

print
যে দ্বীপে যেতে পারে না পুরুষেরা!

বিশ্বের অধিকাংশ স্থানেই পুরুষদের রয়েছে অবাধ যাতায়াতের অধিকার। তবে নারীদের গোপনীয়তার খাতিরে কোনো কোনো স্থানে অবশ্য পুরুষের যাওয়ার অনুমতি থাকে না। খুঁজলে পৃথিবীতে এমন জায়গাও প্রচুর মিলবে। কিন্তু তাই বলে একটা আস্ত দ্বীপে পুরুষদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকাটা অবাক করার ব্যাপারই বটে!

শুনতে অবিশ্বাস্য শোনালেও ক্রিশ্চিয়ানা রোথ নামের এক  মার্কিন তরুণীর কল্যাণে তাই হয়েছে! ফিনল্যান্ডের সমুদ্র উপকূলে অবস্থিত ‘সুপারসি’ নামের দ্বীপটিতে আসলেই পুরুষদের প্রবেশের অনুমতি নেই।

দ্বীপটিকে এমন নিয়ম কিন্তু আগে ছিল না! যেদিন মার্কিন নারী ক্রিশ্চিয়ানা রোথ এর সন্ধান পান, সেদিন থেকে বলতে গেলে দ্বীপটি পুরুষদের সাক্ষাৎ থেকে বঞ্চিত হয়।

আবিস্কারের পর রোথ বাল্টিক সাগরের সবুজ নীল পানির উপর জেগে থাকা ওই ভূখণ্ডটির নাম দিয়েছিলেন ‘‌সুপারসি’‌। আর সেই সময়েই মনে মনে ঠিক করে ফেলেন দ্বীপটি শুধুমাত্র নারীদের জন্য তৈরি করবেন। সেখানে থাকবে না পুরুষদের প্রবেশের অধিকার।

যা ভাবা তাই কাজ। সবুজে ঘেরা ছোট্ট দ্বীপটায় একটি রিসোর্ট তৈরি করে ফেলেন রোথ। প্রচার করেন, এখানে নারীরা নিজেদের ইচ্ছা মতো সময় কাটাতে পারবে। আর যাই হোক পুরুষদের চিন্তা মাথায় নিয়ে সেখানে থাকতে হবে না। পুরুষহীন স্বাধীন মেজাজে ঘুরে বেড়াতে পারবে তারা।

রিসোর্টের প্রচারে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি কমিউনিটিও তৈরি করে ফেলেন ক্রিশ্চিয়ানা। তার নামও দেন ‘সুপারসি কমিউনিটি’‌।

এমন অদ্ভূত চিন্তার কারণ হিসেবে ক্রিশ্চিয়ানার দাবি হচ্ছে, সবসময় যে পুরুষ সঙ্গীকে নিয়েই বেড়াতে হবে এমন ধারণায় তিনি বিশ্বাসী নন। পুরুষ শাসিত দুনিয়ায় ‘‌সুপারসি’ হবে নারীদের ইচ্ছে মতো থাকা-খাওয়া ও আনন্দ করার স্বাধীন স্থান।

কেবিএ

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad