‘কিল বিল’ প্রযোজক-পরিচালকের নির্যাতনের বর্ণনা দিলেন নায়িকা

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

‘কিল বিল’ প্রযোজক-পরিচালকের নির্যাতনের বর্ণনা দিলেন নায়িকা

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:২৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০১৮

print
‘কিল বিল’ প্রযোজক-পরিচালকের নির্যাতনের বর্ণনা দিলেন নায়িকা

গত বছরের নভেম্বরে উমা থারমান জানিয়েছিলেন, তার রাগ কমলে তিনি যৌন হয়রানি ও নির্যাতনের অভিজ্ঞতা সবাইকে জানাবেন। অবশেষে শনিবার নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি প্রযোজক হার্ভি ওয়েনস্টাইন ও পরিচালক কোয়েন্টিন টারান্টিনোর সাথে তার দুঃসহ অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন।

টাইমসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে উমা বলেন, হার্ভি তাকে একাধিকবার আক্রমণ করেছিলেন। হার্ভির অবিরাম উচ্চ প্রশংসা ও প্রভাব-প্রতিপত্তির কারণে উমা তার আচরণে সতর্ক হওয়ার কোনো কারণ খুঁজে পাননি।

একটি ঘটনার বর্ণনায় উমা বলেন, ওয়েনস্টাইন তাকে শারীরিকভাবে আক্রমণ করেন। উমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে হার্ভি নিজের জামা খোলার চেষ্টা করেন এবং ‘বিভিন্ন রকম অরুচিকর কাজ’ করতে থাকেন। উমা বাধা দিলে হার্ভি তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দেন।

উমা থারমান তার আগের সংগঠন ক্রিয়েটিভ আর্ট এজেন্সিকে হার্ভির শিকারী প্রাণীর মত আচরণের জন্য দোষারোপ করেন। একই সাথে তিনি অন্যান্য মেয়েদেরকে হার্ভির হাত থেকে রক্ষা করতে না পারায় নিজেকে দোষী ভাবেন।

উমা বলেন, ‘আমি যেভাবে একা হার্ভির রুমে ঢুকতাম তাই দেখে অন্য কোনো তরুণীও হয়ত তার ঘরে একা যেত। কোয়েন্টিন হার্ভিকে ‘কিল বিল’র নির্বাহী প্রযোজকের দায়িত্ব দিয়েছিল। ওই সিনেমা নারীর ক্ষমতায়নের প্রতীক। কিন্তু তার ফলে সবাই কসাইয়ের কাছে ভেড়ার মত গিয়ে হাজির হয়েছিল। কেউ ভাবেনি অবৈধ কিছু করে কেউ এত উচ্চ পদে আসীন হতে পারে, কিন্তু ওরা হয়েছে।’

এখানেই থেমে থাকেননি উমা থারমান। তিনি টারান্টিনোর নারিবাদী অবস্থানকেও ভণ্ডামি বলে অভিহিত করেন। টারান্টিনো তাকে একটি ঝুঁকিপূর্ণ গাড়ি ব্যবহার করে স্টান্টে অংশ নিতে বাধ্য করেন। সেটের ইঞ্জিনিয়াররা তাকে তাকে গাড়ি ব্যবহার করতে নিষেধ করেছিলেন।

কিন্তু, উমা বার বার অনুরোধ করার পরও টারান্টিনো পরিচালক হিসেবে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করে তাকে ওই দৃশ্যে অভিনয়ে বাধ্য করেন। স্টান্টটিতে অংশ নেয়ার পর উমার ঘাড় ও হাঁটু স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এছাড়াও শুটিংয়ের সময় ‘কিল বিল’-এ উমার মুখে থুতু দেয়া ও তার গলাটিপে ধরার দৃশ্যগুলোতে টারান্টিনো নিজে পারফর্ম করার সময় বিকৃত আনন্দ অনুভব করেন বলে অভিযোগ করেন এই নায়িকা।

উমা বলেন, ‘হার্ভির নির্যাতনে আমি মরে যাইনি। কিন্তু গাড়ি ক্রাশ করার ওই দৃশ্যটা আমার কাছে নেহাতই সস্তা মনে হয়েছিল। ওটা আমার একেবারেই ভালো লাগেনি। ততদিনে আমি অনেকগুলো কঠিন পরীক্ষা পার হয়ে গিয়েছিলাম।’

এমআর/এমএসআই

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad