ভুয়া টুইটার ফলোয়ার বিক্রির প্রতিষ্ঠানে তদন্ত শুরু

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

ভুয়া টুইটার ফলোয়ার বিক্রির প্রতিষ্ঠানে তদন্ত শুরু

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০১৮

print
ভুয়া টুইটার ফলোয়ার বিক্রির প্রতিষ্ঠানে তদন্ত শুরু

ফেসবুক ও টুইটারের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ভুয়া ফলোয়ার বিক্রি করে এমন প্রতিষ্ঠানে তদন্ত শুরু করার ঘোষণা দিয়েছেন নিউ ইয়র্কের এটর্নি জেনারেল এরিক শ্নাইডারম্যান।

শনিবার নিউ ইয়র্ক টাইমসে টুইটারে ফলোয়ার বিক্রি করার প্রতিষ্ঠান ডিভুমি সম্পর্কে একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, তারা ভুয়া নাম পরিচয় ব্যবহার করে বট বা স্বয়ংক্রিয় টুইটার একাউন্ট তৈরি করে। নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে ওইসব একাউন্ট ব্যবহার করে ডেভুমি যে কারও টুইটার একাউন্টের ফলোয়ার ও লাইকের সংখ্যা বাড়িয়ে দেয়।

টাইমসের প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর শ্নাইডারম্যান ডেভুমির কার্যকলাপ তদন্তের নির্দেশ দেন।

এভাবে টুইটার ও ফেসবুকে ফলোয়ার ও পোস্ট লাইকের সংখ্যা বাড়ালে তা জনমতকে প্রভাবিত করতে সাহায্য করে।

গত নভেম্বরে শ্নাইডারম্যান বলেছিলেন, তার কার্যালয় ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন (এফসিসি)-এর ওয়েবসাইটে বিভিন্ন স্বয়ংক্রিয় টুইটার ও ফেসবুক একাউন্ট থেকে করা কমেন্ট তদন্ত করছে।

একটি টুইটে শ্নাইডারম্যান বলেন, 'নিউ ইয়র্কের আইনে নামপরিচয় ভাঁড়ানো অপরাধ বলে বিবেচিত। উন্মুক্ত সংলাপে স্বয়ংক্রিয় একাউন্টগুলোর দাপটে প্রায়ই সত্যিকারের মানুষের বক্তব্য চাপা পড়ে যায়।'

ডেভুমি টাকার বিনিময়ে টুইটার, ইউটিউব, সউন্ডক্লাউড, ভিমিও, পিন্টারেস্ট ও লিঙ্কড-ইনের ইউজারদের ফলোয়ার পোস্টের লাইকের সংখ্যা বাড়িয়ে দেয়।

অনেক সময় সামাজিক মাধ্যমের অনেক একাউন্ট খোলার পরে সেগুলো নিয়মিত ব্যবহার করা হয় না। ডেভুমি ওইসব অব্যবহৃত একাউন্টের তথ্য ব্যবহার করে নতুন ভুয়া একাউন্ট খোলে। এ কারণে সেগুলো আসল মনে হয়।

ভুয়া ফলোয়ার সংগ্রহকারীদের মধ্যে দেশের রাষ্ট্রপতি, টিভি সিরিয়ালের অভিনেত্রী, আমেরিকান আইডলের প্রতিযোগী ও ফুটবল তারকাদের মত বিখ্যাত ব্যক্তিরাও রয়েছেন।

আরও পড়ুন...
এমনটি কিভাবে করছেন সেলিব্রেটিরা?

এমআর/এএসটি

 

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad