‘প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ আত্মসন্তুষ্টিতে ভরপুর’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ | ১০ মাঘ ১৪২৪

‘প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ আত্মসন্তুষ্টিতে ভরপুর’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১০:০৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০১৮

print
‘প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ আত্মসন্তুষ্টিতে ভরপুর’

বর্তমান সরকারের ৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ গতানুগতিক, আত্মতৃপ্তি ও আত্মসন্তুষ্টিতে ভরপুর বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া।

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নেতৃদ্বয় বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের যে ফিরিস্তি দিয়েছেন, তা অসত্য ও ভুলে ভরা। এ ভাষণে জনগণ হতাশ হয়েছেন।

তারা বলেন, দেশবাসীর আশা ছিল, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা ও সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে একটি রাজনৈতিক সমঝোতার আভাস দেবেন। তার ভাষণে তা না থাকায় এই বক্তব্য সময়ের চাহিদা মেটাতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। দেশবাসী এই ভাষণে সম্পূর্ণ হতাশ হয়েছেন।

নেতৃদ্বয় বলেন, হামলা মামলা জর্জরিত বিরোধী দলগুলোকে তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিদিন সংকোচিত হয়েছে। নির্বাচনী ব্যবস্থা সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস হয়ে গেছে।

তারা বলেন, দেশে এখন দুর্নীতি, লুণ্ঠন, অবাধে চলছে। শেয়ারবাজার ও ব্যাংকগুলো লুট হয়ে গেছে, জনজীবনের কোনো নিরপত্তা নেই, আয়ের বৈষম্য দিনদিন বেড়েছে। সরকারের বৈধতা ও নৈতিকতার সঙ্কট দেশের প্রধান সমস্যা। অথচ তিনি সেই রাজনৈতিক সঙ্কট এড়িয়ে গেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ফিরিস্তির বিষয়ে নেতৃদ্বয় বলেন, সরকার একটি ধারাবাহিকতা। বৈধ কিংবা অবৈধ সব সরকারকেই সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য কিছু কাজ করতে হয়। জাতীয় উন্নয়নের চিত্র হিসেবে সে সবের ফিরিস্তি দিলে মানুষ হতাশ হয় বলে আমরা মনে করি।

তারা বলেন, উন্নয়নের যে ফিরিস্তি প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে দিয়েছেন, তার অনেক শুভঙ্করের ফাঁকি। দেশের মানুষ তাদের দৈনন্দিন অভিজ্ঞতায় ভালো করে বোঝেন, দেশ উন্নয়নের না কি অবনতির পথে এগুচ্ছে।

এমএইচ/এসবি

print
 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad