‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনার ভূমিকা সারা বিশ্বকে কাঁপিয়ে তুলেছে’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনার ভূমিকা সারা বিশ্বকে কাঁপিয়ে তুলেছে’

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ৯:৫৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭

print
‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনার ভূমিকা সারা বিশ্বকে কাঁপিয়ে তুলেছে’

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, মিয়ানমারে মুসলিম রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন ও গণহত্যার প্রতিবাদে শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ভূমিকা সারা বিশ্বকে কাঁপিয়ে তুলেছে। বিশ্ব বিবেককে তিনি নাড়া দিতে সক্ষম হয়েছেন। আজকে সারা দুনিয়া মিয়ানমারকে ধিক্কার দিচ্ছে।

শুক্রবার বিকেলে ঝালকাঠির নলছিটিতে একটি সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে জনসংখ্যা বেশি, তার পরেও শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের কোলে তুলে নিয়েছেন। মানবিক কারণে তাদের আশ্রয় দিয়েছেন। পাঁচ লাখ রোহিঙ্গার খাবারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আমরা যদি ১৬ কোটি মানুষকে খাবার দিতে পারি, তাহলে পাঁচ লাখ রোহিঙ্গার মুখেও খাবার তুলে দেওয়া হবে।’

দক্ষিণাঞ্চল একসময় দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার অন্যতম বাণিজ্যিক এলাকায় রূপান্তরিত হবে জানিয়ে শিল্পমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার কারণে দক্ষিণাঞ্চলে উন্নয়নের রূপরেখা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি দক্ষিণাঞ্চলবাসীকে পদ্মা সেতু দিয়েছেন, পায়রা বন্দর দিয়েছেন। পায়রা বন্দর নির্মাণ হওয়ার পরে এই দক্ষিণাঞ্চল হবে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার মধ্যে অন্যতম বাণিজ্যিক এলাকা।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের এখানে সারা দুনিয়ার মানুষ আসবে কাজ করতে। কলকারখানা করার জন্য ইতোমধ্যেই বিভিন্ন দেশ প্রস্তাব করছে, তারা বিনিয়োগ করতে চাইছে। আজকে পদ্মা সেতু ও পায়রা বন্দরের কাজ সমাপ্ত করতে হলে শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে হবে।

বিএনপি-জামায়াত হিংসাত্মক কাজ করে মন্তব্য করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, আমাদের রেখে যাওয়া কাজ তারা আর করে না। এতে উন্নয়ন ব্যাহত হয়। তাই উন্নয়ন চাইলে নৌকায় ভোট দিতে হবে।

শিল্পমন্ত্রী নলছিটি উপজেলার কুশংগল ইউনিয়নের শিমুলতলা-মানপাশা সড়কের এক কোটি ৪১ লাখ টাকা ব্যয়ে ২৫ মিটার লম্বা একটি গার্ডার সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

এ উপলক্ষে সেতু সংলগ্ন মাঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও জনসভার আয়োজন করা হয়।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঝালকাঠি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার মো. শাহ আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির, নলছিটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. ইউনুস লস্কর, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফুল ইসলাম ও ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান।

পরে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী।

এর আগে শিল্পমন্ত্রী নলছিটি শহরের টিঅ্যান্ডটি সড়কে সেবা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উদ্বোধন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক ঝালকাঠি জেলা যুবলীগের সদস্য ও নলছিটি উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খান মনিরুজ্জামান বিল্পব।

জেআইজে/এসবি

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad