‘বানভাসি মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার’

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৮ আশ্বিন ১৪২৪

‘বানভাসি মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার’

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ৫:৪১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৭

print
‘বানভাসি মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার’

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, `দেশে কোনো খাদ্যের অভাব নেই। তাই বন্যা দুর্গতদের ভয়ের কোনো কারণ নেই। পানি না কমে যাওয়া পর্যন্ত বানভাসি মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার। কেউ যেন খাদ্যাভাবে ও বিনা চিকিৎসায় মারা না যায়। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী গৃহহীন সকলকে গৃহনির্মাণ করে দিতে বলেছেন। অসহায় দুর্গতদের সত্যিকার তালিকা তৈরী করে সরকার সহায়তা করছে।’

সোমবার দুপুরে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার শাখাহাতির চরের আশ্রয়ণ প্রকল্প মাঠে বন্যা দুর্গত এক হাজার পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে ত্রাণের চাল বিতরণকালে ও সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নেতারা বানভাসিদের পাশে না থেকে চিকিৎসার নামে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছে।’

বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আসুন বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ান। বিএনপি চাইলে তাদেরকেও ত্রাণ দেওয়া সম্ভব। এরপরও আমরা চাই বিএনপি বানভাসিদের পাশে যেন থাকে।’

এ সময় তিনি বন্যা কবলিত এলাকায় সাধারণ মানুষের কাছ থেকে এনজিওদের ঋণের কিস্তি আদায় কয়েক মাসের জন্য বন্ধ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য রুহুল আমিন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব শাহ কামাল, অতিরিক্ত সচিব খালেদ মাহমুদ, যুগ্ম সচিব মোহসিন, যুগ্ম সচিব আলী রেজা, কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাফর আলী, কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, চিলমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা মুরাদ হাসান বেগমসহ আরো অনেকে।

ইউএএ/এসএফ

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad