‘ইভিএম মেশিনগুলো বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিন’
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬

‘ইভিএম মেশিনগুলো বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিন’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৪:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

‘ইভিএম মেশিনগুলো বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিন’

ইভিএম মেশিনগুলো বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, কোনো অনুমোদন ছাড়া নির্বাচন কমিশন এলসি খুলে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে ইভিএম মেশিন কিনেছে। এতে দেশের চার হাজার কোটি টাকা অপচয় হয়েছে।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আমির খসরু বলেন, আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশে ২১ হাজার টাকা করে ইভিএম মেশিন কিনেছে। অথচ সেই ইভিএম মেশিন আমাদের নির্বাচন কমিশন কিনেছে ২ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা করে।

‘তাই আমি নির্বাচন কমিশনকে বলবো যেসব মেশিন কেনা হয়েছে, সেগুলোর দুর্নীতির টাকাও পকেটে ঢুকে গেছে। এখন আল্লাহর ওয়াস্তে বাংলাদেশের জনগণকে বাঁচান। ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার স্বার্থে মেশিনগুলোকে বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিন। এই জাতিটাকে এবার মাফ করে দেন আপনারা,’ মন্তব্য করেন খসরু।

আমির খসরু আরও বলেন, ব্যালট বাক্সে প্রিজাইডিং কর্মকর্তার সই দিয়ে দিনের বেলা ভোট চুরি করা এতটা সহজ নয় সেটা আওয়ামী লীগ ৩০ তারিখের নির্বাচনে বুঝতে পেরেছিল। তাই ২৯ তারিখ রাতে ভোট ডাকাতি করেছিল।

এজন্য সরকার জানে যে ব্যালটে সিল মেরে দিনের আলোতে ভোট চুরি করা কতটা কষ্টের। তাই তারা নতুন অধ্যায়ে চালু করেছে- আর সেই অধ্যায় হলো ইভিএম অধ্যায়।

তাই আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে, ইভিএম বন্ধ করতে হবে। আর ইভিএম বন্ধ না হলে আগামী দিনের নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে আমাদের ঐক্যবদ্ধ সিদ্ধান্ত নিতে হবে। 

চট্টগ্রামের উপনির্বাচন প্রসঙ্গে আমির খসরু বলেন, ইতোমধ্যে চট্টগ্রামের উপনির্বাচনে প্রায় সকল কেন্দ্র ক্ষমতাসীনরা দখল করে নিয়েছে। অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ভয়-ভীতির মাধ্যমে তারা কেন্দ্র দখল করে নিয়েছে। ভোটাররা ভোট দিক বা না দিক তারা তাদের ইভিএমের মাধ্যমে সুন্দরভাবে ভোটগুলো তাদের পক্ষে নিয়ে নিচ্ছে।

কেন্দ্র দখল করে ইভিএমের মাধ্যমে সরকারি দল তাদের পক্ষে ভোটগুলো নিয়ে নিচ্ছে। ঢাকাতেও একই কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

আয়োজক সহ সভাপতি কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চলনায় মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান,যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য বিলকিস ইসলাম, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, জমিয়তে ওলামায়ে বাংলাদেশ এর যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা সোয়াইব আহমেদ, ঢাকা মহানগর কৃষক দলের আহ্বায়ক নাসির হায়দার, তাতী দলের যুগ্ন আহ্বায়ক কাজী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

এমএইচ/এএসটি

 

রাজনীতি: আরও পড়ুন

আরও