কত মামলায় আটক খালেদা জানেন না তার আইনজীবীরাই

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

কত মামলায় আটক খালেদা জানেন না তার আইনজীবীরাই

মাহমুদুল আলম ৯:৩৫ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০১৮

print
কত মামলায় আটক খালেদা জানেন না তার আইনজীবীরাই

‘তোমার কথা হেথা কেহ তো বলে না, করে শুধু মিছে কোলাহল।’ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এই গানটি লিখেছিলেন যেন হালের বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করেই।

দেশের সর্বোচ্চ আদালতে খালেদা জিয়ার জামিন বহাল থাকার পর প্রশ্ন হচ্ছে- কতটি মামলায় তাকে আটক দেখানো (শ্যোন আরেস্ট) হয়েছে। তিনি মুক্তি পাচ্ছেন কবে? তার মুক্তি নির্ভর করছে এসব মামলায় জামিন লাভের ওপর।

খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলছেন, মুক্তির আইনি পথ সহজ হয়ে গেছে খালেদা জিয়ার জন্য। কারণ দণ্ডপ্রাপ্ত মামলাতে দেশের সর্বোচ্চ আদালত তার জামিন বহাল রেখেছে, অন্যগুলো তো বিচারাধীন মামলা। এগুলোতে সাধারণত জামিন হয়ে যায় তুলনামূলক সহজেই।

কিন্তু এসব মামলায় জামিন নেয়াতো পরের কথা, কয়টি মামলায় জামিন নিতে হবে অর্থাৎ কয়টি মামলায় খালেদা জিয়া শ্যোন আরেস্ট- সেটিই জানেন না বিএনপির জ্যেষ্ঠ আইনজীবীরা। অন্ততপক্ষে খালেদা জিয়ার প্রধান আইনজীবীরা।

এই সংখ্যা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের কাছে ৭, খন্দকার মাহবুব হোসেনের কাছে ৩, এএম মাহবুব উদ্দিন খোকনের কাছে ৫, সানাউল্লাহ মিয়ার কাছে ৬ এবং কায়সার কামালের (দলের আইনবিষয়ক সম্পাদক) কাছে ২টি।

এ বিষয়ে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মওদুদ আহমদ বলেন, এখন পর্যন্ত সাতটি মামলা আছে। তিনটি কুমিল্লায়, দুটি ঢাকায় ও একটি নড়াইলে। অর্থাৎ সংখ্যায় সাত বললেও তার হিসেবে হয় ছয়টি।

আরেক জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, বর্তমানে তিনটি মামলা আছে। দুটি কুমিল্লায় ও একটি নড়াইলে। এসব মামলায় তার (খালেদা জিয়া) জামিন নিতে হবে।

সুপ্রিম কোর্ট বারের সাধারণ সম্পাদক এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন জানান, খালেদা জিয়াকে মোট পাঁচটি মামলায় শ্যোন আরেস্ট দেখানো হয়েছে। এসব মামলায় জামিনের জন্য আমরা হাইকোর্টে আসব।

আরেক আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ম্যাডামকে (খালেদা জিয়াকে) কুমিল্লায় তিন, ঢাকায় দুই ও নড়াইলের একটি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

কুমিল্লার মামলাগুলোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটি বিশেষ ক্ষমতা আইনে, একটি ৩০২ ধারা (হত্যা মামলা) ও অপরটি বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা হয়েছে। বাকি তিনটি মামলা মানহানির।

এই আইনজীবী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার কারামুক্তিতে আরও ছয় মামলায় জামিন পেতে হবে। এর মধ্যে চার মামলায় প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট, এগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। কুমিল্লা, নড়াইল এবং ঢাকাতে এ মামলাগুলো রয়েছে। তার বিরুদ্ধে সর্বমোট মামলা ৩৬টি।’

দলের আইনবিষয়ক সম্পাদক কায়সার কামাল বলেন, ‘তার বিরুদ্ধে সর্বমোট ৩৬টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে শুধু দুটি মামলায় প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (হাজিরা পরোয়ানা) রয়েছে। খালেদা জিয়ার মামলার সব ফাইল আমার কাছেই থাকে। এখন সরকার বাধা সৃষ্টি না করলে এসব মামলাতেও তার জামিনে মুক্তিতে বাধা থাকবে না।’

এমএ/এমএসআই

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad