‘বিচারক মহোদয় দেশনেত্রীর বক্তব্য ইচ্ছাকৃত বিকৃত করেছেন’

ঢাকা, শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫

‘বিচারক মহোদয় দেশনেত্রীর বক্তব্য ইচ্ছাকৃত বিকৃত করেছেন’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৭:৩৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮

print
‘বিচারক মহোদয় দেশনেত্রীর বক্তব্য ইচ্ছাকৃত বিকৃত করেছেন’

আত্মপক্ষ সমর্থনে আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দেয়া বক্তব্য বিচারক ‘ইচ্ছাকৃতভাবে বিকৃত’ করেছেন বলে দাবি করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বুধবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

রিজভী বলেন, ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার বিচারক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যে রায় দিয়েছেন, সেখানে বিচারকের নিরপেক্ষতা সম্পর্কে আমাদের পূর্বের বক্তব্যগুলোরই সত্যতা সুপ্রমাণিত হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া আদালতে যে বক্তব্য দিয়েছেন, সেটিকে বিচারক বিকৃত করে তার রায়ে উদ্ধৃত করেছেন। বেগম জিয়া বলেছিলেন, ...ছাত্র ও শিক্ষকদের হত্যা করা হচ্ছে। এগুলি কী ক্ষমতার অপব্যবহার নয়? ক্ষমতার অপব্যবহার আমি করেছি?’

‘কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় বিচারক মহোদয় দেশনেত্রী বেগম জিয়ার বক্তব্যকে সম্পূর্ণ ইচ্ছাকৃতভাবে বিকৃত করেছেন কেবলমাত্র সরকার প্রধানকে সন্তুষ্ট করার জন্য’ যোগ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব।

তিনি বলেন, ‘নিজের চাকরির পদোন্নতির জন্যই তিনি (বিচারক) বেগম জিয়ার বক্তব্যকে বিকৃত করে তার রায় লিখেছেন বলে জনগণ মনে করে। ন্যায়বিচারকে পদদলিত করে বিচারক ড. আক্তারুজ্জামান যে কুৎসিত দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, সেজন্য তিনি ইতিহাসে কলঙ্কিত ব্যক্তি হয়ে থাকবেন। শেখ হাসিনার জামানায় ইনসাফ যে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে তা এই ড. আক্তারুজ্জামানদের কারণে।’

রিজভী বলেন, ‘বিচারক ড. আক্তারুজ্জামান জুডিসিয়াল ফ্রড করেছেন। এই বিচারক শিক্ষা ও পেশার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহ ও জনগণের সাজা থেকে এরা রেহাই পাবেন না।’

তিনি বলেন, ‘পক্ষপাতদুষ্ট এই বিচারকরা সরকারের অনুগ্রহভাজন হওয়ার প্রতিযোগিতায় লিপ্ত থাকায় এই ভোটারবিহীন সরকার গণতন্ত্রকে ধুলোয় লুটিয়ে দেশে অরাজকতা, বিশৃঙ্খলা, হিংসা ও গুম-খুনে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।’

এমএইচ/এএল/এমএসআই

 
.




আলোচিত সংবাদ