তিন মামলায় খালেদাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হচ্ছে

ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪

তিন মামলায় খালেদাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হচ্ছে

পরিবর্তন প্রতিবেদক ও কুমিল্লা প্রতিনিধি ২:৩৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮

print
তিন মামলায় খালেদাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হচ্ছে

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে এবার কুমিল্লায় নাশকতার ঘটনায় দায়ের করা তিন মামলায় ‘শ্যোন অ্যারেস্ট’ দেখানো হচ্ছে। এরই মধ্যে এসব মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা কুমিল্লা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাছে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন।

তিনি বলেন, ২০১৫ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নাশকতার ঘটনায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাগুলোর সকল নথিপত্র ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লার ওই তিনটি মামলায় (নিবন্ধন নম্বর- ৪৩/১৫, ৫১/১৫ ও ৫২/১৫) বিএনপির বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতা জামিন নিলেও, দলটির প্রধান খালেদা জিয়া এসব মামলায় জামিন আবেদন করেননি। তাই আদালত খালেদা জিয়াসহ অনুপস্থিত নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

খালেদা জিয়ার ঠিকানা রাজধানীতে হওয়ায় কুমিল্লা থেকে গ্রেফতারি পরোয়ানা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। অন্য মামলায় তার সাজা হওয়ার পর কারাগারে থাকায় আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল করার জন্য ওই মামলায় তাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে যাত্রীবাহী একটি নৈশকোচে পেট্রলবোমা হামলা হলে ৮ যাত্রীর মৃত্যু হয়।

ওই ঘটনায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের সাবেক সংসদ সদস্য জামায়াত নেতা ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরকে প্রধান আসামি করে ৫৬ জনের নাম উল্লেখ এবং আরও ২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

এই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ বিএনপির ৬ শীর্ষস্থানীয় নেতাকেও হুকুমের আসামি করা হয়।

পরে ২০১৭ সালের ৬ মার্চ খালেদা জিয়াসহ ৭৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ ইব্রাহীম। পরে মামলার তদন্তভার ডিবি পাওয়ার পর তদন্ত কর্মকর্তা ফিরোজ আলম ২০১৭ ডিসেম্বরে চার্জশিট দাখিল করেন।

২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি বাসে পেট্রলবোমা নিক্ষেপে ৮ জন নিহতের দিনই বিস্ফোরক দ্রব্য এবং বিশেষ ক্ষমতা আইনে আরও দুটি মামলা করে পুলিশ।

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন পরিবর্তন ডটকমকে জানান, খালেদা জিয়ার মামলাগুলোর সব নথিপত্র ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

পিএসএস-জেপি/এসএফ/আইএম

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad