বিক্ষোভের মুখে আয়করের তথ্য জানালেন ক্যামেরন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭ | ৪ কার্তিক ১৪২৪

বিক্ষোভের মুখে আয়করের তথ্য জানালেন ক্যামেরন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:৪৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০১৬

print
বিক্ষোভের মুখে আয়করের তথ্য জানালেন ক্যামেরন
পানামা পেপারস্ কেলেঙ্কারির জেরে রোববার নিজের আয়কর ও আর্থিক তথ্যাদি প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।

প্রকাশিত ওই নথিতে দেখা গেছে, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ক্যামেরন আয় করেছেন ২ লাখ পাউন্ডের বেশি। আর কর দিয়েছেন ৭৬ হাজার পাউন্ড।

পানামার আইনি সহায়তা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান মোসাক ফঁসেকার পানামা পেপারস্ নামের ফাঁস হওয়া নথিতে ক্যামেরন ও তার পরিবারের সদস্যদের আয়কর ফাঁকি দেওয়ার চিত্র ওঠে আসে। এরপর তার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন হাজারো ব্রিটন।

বিবিসির খবরে বলা হয়, পানামা পেপারস্ কেলেঙ্কারির ঘটনা প্রথম দিকে এড়িয়ে গেলেও অফশোর অ্যাকাউন্ট বাল্টিমোর হোল্ডিংস থেকে লাভবান হওয়ার কথা পরে স্বীকার করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। ক্যামেরনের দাবি, তিনি ও তার বাবা অফশোর অ্যাকাউন্টের বিপরীতে ব্রিটেনের আয়কর পরিশোধ করেছেন। বার্ষিক আয়-ব্যয়ের নথি প্রকাশ করে ওই ক্ষোভের জবাব দেওয়া হবে।

একই সঙ্গে আয়কর ফাঁকির অভিযোগ তদন্তে একটি নতুন টাস্ক ফোর্স গঠনেরও ঘোষণা দেন তিনি।

ক্যামেরনের আয়কর নথির বরাত দিয়ে বিবিসি বলছে, লন্ডনে নটিংহিলের পারিবারিক বাড়ি থেকে ভাড়া বাবদ ৪৬ হাজার ৮৯৯ পাউন্ড আয় করেছেন তিনি। ওই বাড়ির ৫০ শতাংশ শেয়ার রয়েছে তার।

আয়কর নথি থেকে আরো জানা গেছে, ২০১০ সালে বাল্টিমোর হোল্ডিংস বিক্রি থেকে তিনি ও তার স্ত্রী ১৯ হাজার পাউন্ড লাভবান হন। এর মধ্যে ডেভিড ক্যামেরন নিজে পান ৯ হাজার ৫০১ পাউন্ড। ওই সময় আয়কর প্রদানের সর্বনিম্ন সীমা ছিল ১০ হাজার ১০০ পাউন্ড। ২০১০ সালে বাবার মৃত্যুর পর ডেভিড ক্যামেরন তিন লাখ পাউন্ড মূল্যের সম্পত্তি পান। পরে সম্পত্তি বণ্টনে ভারসাম্য করা হলে ২০১১ সালের মে ও জুলাই মাসে মায়ের কাছ থেকে এক লাখ পাউন্ড করে অর্থ পান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

ক্যামেরন বলেছেন, পুরোপুরি খোলা ও স্বচ্ছ হওয়ার স্বার্থেই নিজের আর্থিক বিষয়ের নথি প্রকাশ করছেন তিনি।

কেকে

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad